না.গঞ্জে অবৈধ ইটভাটা দুই মাসের বন্ধে আবারও হাই কোর্টের নির্দেশ

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের যেসব অবৈধ ইটভাটা এখনও বন্ধ করা হয়নি; সেগুলা বন্ধ করে দুই মাসের মধ্যে বাস্তবায়ন প্রতিবেদন আবারও দিতে বলেছে হাই কোর্ট।

সোমবার (১৩ জানুয়ারি) দুপুরে বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কামরুল কাদেরের হাই কোর্টে বেঞ্চ এ আদেশ দেন।।

ঢাকার বায়ু দূষণ নিয়ে মানবাধিকার ও পরিবেশবাদী সংগঠন এইচআরপিবি করা একটি রিটের সম্পূরক আবেদনের প্রেক্ষিতে আসে।

ঢাকার বায়ুমান উন্নয়নে পরিবেশ অদিদপ্তর কী পদক্ষেপ নিয়েছে এবং অধিদপ্তরে জনবল নিয়োগের বিষয়ে কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, তা জানাতে আগামী ২ ফেব্রুয়ারি পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপিরচালককে আদালতে হাজির থাকতে বলা হয়েছে।

আদালতে আবেদনকারী পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মনজিল মোরসেদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ বি এম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার।

আদেশের পর আইনজীবী মনজিল মোরসেদ সাংবাদিকদের বলেন, ঢাকা ও আশপাশের বায়ু দূষণ বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্যায়ে রয়েছে। এ কারণে জনগণের স্বাস্থ্য সুরক্ষার স্বার্থে জনস্বার্থে একটি রিট আবেদন করেছিল এইচআরপিবি। আমরা বলেছি, এখন পর্যন্ত বায়ূ দূষণে আমরা সর্বোচ্চ পর্যায়ে আছি। এটা নিয়ন্ত্রণে কিছু পদক্ষেপ দরকার। সে জন্য সম্পূরক আবেদনে ১২ দফা নির্দেশনা চেয়ছিলাম। তার মধ্যে আদালত নয়টি নির্দেশনা দিয়েছে।

গত বছরের ২৬ নভেম্বর ঢাকা ও ঢাকার আশেপাশের এলাকায় বায়ু দূষণের কারণ ও দূষণ রোধে একটি অভিন্ন নীতিমালা প্রণয়নের জন্য পরিবেশ সচিবের নেতৃত্বে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন কমিটি গঠণের নির্দেশ দেয়। এছাড়া ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, মুন্সিগঞ্জ ও মানিকগঞ্জ জেলার অবৈধ ইটভাটা ১৫ দিনের মধ্যে বন্ধেরও নির্দেশ দেওয়া হয়।

৫ জানুয়ারি পরবর্তী আদেশের জন্য রেখে বিবাদীদের এর মধ্যে নির্দেশনা বাস্তবায়নের প্রতিবেদন দিতে বলে হাই কোর্ট।

এর ধারাবাহিকতায় পরিবেশ সচিব এবং পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের পক্ষে রোববার আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করা হয়। আর সোমবার রিট আবেদনকারী পক্ষ ১২ দফা নির্দেশনা চেয়ে সম্পূরক আবেদন করে। সে আবেদনের শুনানি নিয়ে আদালত ৯ দফা নির্দেশনা দিল। আগামী ১ মার্চিএ মামলা পরবর্তী আদেশের জন্য রাখা হয়েছে।

0