না.গঞ্জে করোনায় মৃত্যু বাড়ছে, বেসরকারি হিসেবে ৭

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: সারা বিশ্বেই ছড়িয়ে পড়েছে নভেল করোনা ভাইরাস। আর ইতিমধ্যেই সোমবারের আইইডিসিআরের তথ্য অনুযায়ী বাংলাদেশে মৃত্যু হয়েছে ১২জনের। ক‌রোনাভাইরাস জ‌নিত ও উপস‌র্গে নারায়ণগ‌ঞ্জে এ পযর্ন্ত ৭জ‌নের মৃত্যু হ‌য়ে‌ছে ব‌লে জানা যায়। ত‌বে, সরকারী ভা‌বে গতকাল (সোমবার) পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জে ৪জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে এবংআক্রান্ত ২৩ জন। আজ‌ (৭এপ্রিল) এখনও পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জ স্বাস্থ্য বিভাগ সর্ব‌শেষ তথ্য জানায়‌নি।

নারায়ণগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জন ডা.মোহাম্মদ ইমতিয়াজ ৬এপ্রিল সন্ধ্যায় জানান, নারায়ণগঞ্জে পূর্বে ২জন। এবং আজকে আরও ২জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন ২জনের মধ্যে একজন দেওভোগ আখড়া এলাকার এবং অন্যজন শহরের জামতলা এলাকার।

তবে, ৬এপ্রিল শহরের শীতলক্ষ্যায় বাসিন্দা ফারুক আহমেদ (৫০) এর মৃত্যুর সত্যতা জানিয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মোস্তফা আলী শেখ বলেন, দুই সপ্তাহ ধরে ফারুকের জ্বর ছিল। পরে রাজধানীতে কুয়েত মৈত্রি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। সেখানে তার নমুনা পরীক্ষা করা হলে পজেটিভ রিপোর্ট আসে। ৬ এপ্রিল দুপুরে তিনি মারা যান।

এ নিয়ে ৬এপ্রিল সন্ধ্যা পর্যন্ত ৫জনের মৃত্যু হয়। এর পর মধ্য রাতে আরও দুই জনের মৃত্যুর খবর আসে। একজন চাষাঢ়ার এক ভবন মালিক, অপর জন দেওভোগের সঙ্গীতশিল্পি।

এদিকে, নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা.জাহিদুল জানান, নারায়ণগঞ্জে করোনায় মোট ৪জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও, বাকি গতকাল থেকে যাদের মৃত্যু হয়েছে আইইডিসিআরের নমুনা পরীক্ষা মোতাবেক আজ সেই তথ্য জানা যাবে।

করোনায় নারায়ণগঞ্জে প্রথম মৃত্যুর হয় বন্দরের এক নারীর। ২৯ মার্চ নারায়ণগঞ্জের বন্দরের রসুলবাগের এক নারী শ্বাসকষ্ট ও জ্বর নিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। তখনই তাকে ঢামেক থেকে কুর্মিটোলা হসপিটালে পাঠানো হয়। তবে তার স্বজনরা তাকে ওইদিন কুর্মিটোলায় না এনে বাড়ি নিয়ে যায়। পরদিন তার অবস্থার অবনতি ঘটলে কুর্মিটোলা হসপিটালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। রসুলবাগের এই নারীর মৃত্যুর পর লকডাউন করা হয় বন্দর উপজেলার রসূলবাগ এলাকার শতাধিক বাড়ি।

এরপর, ৪এপ্রিল, নারায়ণগঞ্জের সদর উপজেলার কাশীপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের বাংলা বাজার বড় আমবাগান (সুচিন্তাপুর নগর)এলাকায় আবু সাঈদ মাদবর (৫৫) মারা যান। ৪এপ্রিল সকাল ৯টায় কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

৬এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ শহরের জামতলা এলাকায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। মৃত ব্যক্তির নাম গিয়াসউদ্দিন (৬০)।

একই দিন দেওভোগ আখড়া এলাকায় মারা যায় আরও একজন।

৬ এপ্রিল দুপুরে নারায়ণগঞ্জ শহরের ১৮নং ওয়ার্ডে করোনা আক্রান্ত হয়ে আরও একজনের মৃত্যু হয়। মৃত্যুর সত্যতা স্বীকার করে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ১৮ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. কবির হোসাইন বলেন, কয়েক দিন আগেই ফারুক আহম্মেদ করোনা রোগী হিসেবে শনাক্তা হয়েছিল। তখন ওই পরিবারকে লকডাউনে রাখা হয়। আজ মৃত্যু হয়েছে।

সোমবার (৬ এপ্রিল)দিবাগত রাত ১২ টায় ঢাকার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে চাষাঢ়ার মাসুদা প্লাজার মালিক ও রোটারি ক্লাব অব নারায়ণগঞ্জ মিড টাউনের সাবেক প্রেসিডেন্ট ।

সোমবার (৬ এপ্রিল)দিবাগত রাত ১টায় জ্বর ও ঠান্ডাজনিত রোগে ভুগে মারা যান সঙ্গীত শিল্পী খাইরুল আলম হিরো (৩০)। মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করে এনসিসির প্যানেল মেয়র আফরোজা হাসান বিভা জানান, গতরাত ১টায় মৃত্যু হয়েছে। সাধারণত জীবাণু থাকলেও ৩-৪ঘন্টা অবদি এরপর আর থাকে না। কিন্তু প্রায় ১২ঘন্টা পেরিয়ে গেলেও তার পরিবারের কেউ ঘর থেকে বের হচ্ছে না। পরিবারের সবাই আতঙ্কে রয়েছেন। আমরা বলতেও পারছি না করোনা নাকি স্বাভাবিক মৃত্যু। তারপরও, আমরা এনসিসির ডাক্তারদের সাথে কথা বলেছি। এবং ঘটনাস্থলে হার্ট ফাউন্ডেশনের ডিজি কিছুক্ষণের মধ্যেই লোক পাঠাবেন।

0