না.গঞ্জে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে অনলাইনে পশুর হাট

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ঘরবন্দি রোজার ঈদ কাটানোর পর এবার করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে অনলাইনে কোরবানির পশু কেনাবেচার উদ্যোগ নিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসন। এ উদ্যোগ বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত খুব শীঘ্রই নেওয়া হবে। একই সাথে জনস্বাস্থ্যের বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে বসবে কোরবানির পশুর হাট।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ১ অগাস্ট মুসলিমদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আজহা উদযাপিত হতে পারে বাংলাদেশে। সারা বছর জেলায় যে সংখ্যক পশু জবাই হয়, তার বড় অংশ এই কোরবানির ঈদের সময় হয়।

নারায়ণগঞ্জ প্রানিসম্পদ অধিদফতর সূত্র জানায়, নারায়ণগঞ্জ জেলায় এবার কোরবানির পশুর চাহিদা প্রায় এক লাখ। জেলার বিভিন্ন এলাকার ২‘শ খামারে গরু মোটাতাজা করা হয়েছে প্রায় ১০ হাজার। বাকি গরুর চাহিদা মিটবে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা গরু দিয়ে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন লাইভ নারায়ণগঞ্জকে জানান, অনলাইনে বিক্রির জন্য প্লাটফরম রেডি আছে। বিক্রেতারাও তাদের নিজস্ব ওয়েবসাইট, ফেসবুক পেজ বা সামাজিক যোগাযোগের অন্যান্য মাধ্যমে তাদের পশুর ছবি আপলোড করছে। আমরা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদেরকে সার্বিকভাবে সহযোগিতা করবো। তাদেরকে প্রমোট করার জন্য বা প্রচারণার ব্যবস্থা করবো। যাতে ক্রেতা ও বিক্রেতা কেউ প্রতারিত না হন; পশুর ওজন অনুযায়ী আমরা একটা দামও নির্ধারণ করা যায় কি না? খুব শীঘ্রই একটা মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত নিবো।

জনস্বাস্থ্যের বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে এবার গত বছরের চাইতে কিছুটা কম হাট বসবে। ইতোমধ্যে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনসহ জেলার ৫টি উপজেলায় পশুর হাট কোথায় বসানো যায়। সেই বিষয়ে চূড়ান্তের কাজ চলছে। স্বাস্থ্য বিধি মেনে পশুর হাট গুলো বসানোর কথা বলেছেন জেলা প্রশাসক।

এ উদ্যোগের ফলে কোরবানির পশু কেনার জন্য বাজারমুখী প্রবণতা অনেকাংশে হ্রাস পাবে এবং পশু বিক্রয়কারীদেরও বিক্রয় মন্দার শঙ্কা দূর হবে বলে আশা করছে সংশ্লিষ্টরা।

 

আরও পড়তে ক্লিক করুন

এবার না.গঞ্জে কমছে কোরবানির পশুর হাটের সংখ্যা

0