না.গঞ্জে পালিত হলো কোজাগরী লক্ষ্মী পূজা

0

লাইভ নারায়নগঞ্জ: আজ সনাতন ধর্মালম্বিদের কোজাগরী লক্ষ্মী পূজা। বাংলায় শারদীয়া দুর্গোৎসবের পর আশ্বিন মাসের শেষে পূর্ণিমা তিথিতে এই পূজোর আরাধনা করা হয়। বাঙালি সনাতন ধর্মালম্বিদের ঘরে ঘরে এ এক চিরন্তন প্রথা। সনাতন ধর্মীয় শাস্ত্রীয় বিধান অনুযায়ী ফুল, জল, পুষ্প বিল্বপত্রসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানিকতার মধ্যে নারায়ণগঞ্জে পালিত হচ্ছে ঐশ্বর্য ও শষ্যের দেবী শ্রী শ্রী লক্ষ্মী পূজা।

ব্যাপক উতসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে বিভিন্ন মন্দিরে ও বাসাবাড়ি অনুষ্ঠিত হবে শ্রী শ্রী লক্ষ্মীপূজা। বাংলার প্রতি ঘরে ধন সম্পদ তথা ঐশ্বর্য ও শস্যের প্রতীক মা লক্ষ্মীর আরাধনায় মেতে উঠবেন সনাতন ধর্মাবলম্বীরা। পূজার আনুষ্ঠানিকতা শেষে পুষ্পাঞ্জলি, প্রসাদ বিতরণ ও অতিথি আপ্যায়ন করা হয়। পূজা অর্চনার পাশাপাশি ঘরবাড়ির আঙিনায় আজ শোভা পাচ্ছে চালের গুঁড়োয় লক্ষ্মীর পায়ের ছাপের আলপনা। সন্ধ্যায় ঘরে ঘরে প্রজ্জলন করা হয় বিশেষ প্রদীপ।

নারায়ণগঞ্জ শহরের উকিলপাড়া দূর্গা পূজা মন্ডপে, দরিদ্র ভান্ডার কালিবাড়িতে, দেওভোগ লক্ষ্মী নারায়ণ জিউড় আখড়া, গলাচিপা রামকানাই আখাড়া, মিনাবাজার গৌর নিতাই আখড়াসহ বিভিন্ন এলাকায় ঘরোয়া পরিবেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে লক্ষ্মীপূজার বিভিন্ন ধর্মীয় কর্মসূচি।

এছাড়া অনেকেই সারা বছর প্রতি বৃহস্পতিবার লক্ষ্মীর পুজো করে থাকেন। শস্য সম্পদের দেবী বলে ভাদ্র সংক্রান্তি, পৌষ সংক্রান্তি ও চৈত্র সংক্রান্তিতে এবং আশ্বিন পূর্ণিমা ও দীপাবলীতে লক্ষ্মীর পুজো হয়। লক্ষণীয় বিষয় হল-খারিফ শস্য ও রবি শস্য ঠিক যে সময় হয় ঠিক সেই সময় বাঙালি সনাতনধর্মালম্বিরা মেতে ওঠে লক্ষ্মীর আরাধনায়। তবে পুজোর উপাচারে পরিবর্তন হয় মাস ভেদে। প্রতি বছরের মতো এবারো লক্ষী পূজো তিথি থাকছে ২ দিন ব্যাপি

দেওভোগ রাজা লক্ষ্মী নারায়ণ জিউর পুরোহিত দীপঙ্কর চক্রবর্তী জানায়, বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত পঞ্জিকা সূত্রে শুক্রবার বিকেল ৫ টা থেকে শনিবার সন্ধা পর্যন্ত পূর্নিমার তিথি অনুযায়ী ২ দিন ব্যাপি লক্ষ্মী পূজা হবে। ধন সম্পদের দেবী মা লক্ষ্মীর করুনা লাভের আশায় এ পূজা করা হয়।

0