না.গঞ্জে যায়যায়দিনের প্রতিষ্ঠা বাষির্কী পালন

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ১৬ কোটি মানুষের জন্য দেশের জনপ্রিয় দৈনিক যায়যায়দিন পত্রিকার ১ যুগ পেরিয়ে ১৪ বছরে পদার্পণ উপলক্ষ্যে নারায়ণগঞ্জে আলোচনা সভা ও কেক কেটে পত্রিকার প্রতিষ্ঠা বাষির্কী পালন করা হয়েছে। আর দৈনিক যায়যায়দিন পত্রিকার সাফল্য কামনা করেছেন প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথি ও সাংবাদিক নেতৃবৃন্দরা। এছাড়া পত্রিকা সুনাম ধরে রাখতে ভাল ভাল নিউজ সংবাদ প্রকাশ করার আহবান করা হয়।

সোমবার (১৫জুলাই) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ শহরের চাষাঢ়াস্থ অবস্থিত রেললাইন সংলগ্ন বাগান বাড়ি রেস্টুরেন্টে দৈনিক যায়যায়দিন পত্রিকার প্রতিষ্ঠা বাষির্কী পালন করা হয়।

অনুষ্ঠানে দৈনিক যায়যায়দিন পত্রিকার নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি মো: শাহাদাত হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) নাহিদা বারিক। এতে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: আসলাম হোসেন, কাশিপুর ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী প্রমুখ।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন কাশিপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য শামীম আহম্মেদ, দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশ নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি শরীফ সুমন, প্রেস নারায়ণগঞ্জ ডটকমের প্রকাশ ও সম্পাদক মো: ফখরুল ইসলাম, ফটো জার্নালিস্ট এ্যাশোসিয়শনের নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারন সম্পাদক এনামুল হক সিদ্দিকী, সাংবাদিক নেয়ামত উল্লাহ, দৈনিক যুগান্তর ফতুল্লা প্রতিনিধি আল আমিন প্রধান, বক্তাবলীর গড়কুল হাই স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নাজির হোসেন, সাংবাদিক কবিরুল ইসলাম, সাংবাদিক মো: মামুন হোসেন, প্রেস বাংলার সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল ইমরান, ফটো নারায়ণগঞ্জ ডটকমের সম্পাদক মো: জনি, প্রবাসী ব্যবসায়ী মো: কামাল হোসেন, জাগো নারায়ণগঞ্জের সম্পাদক শহিদুল্লাহ রাসেল, সাংবাদিক মুন্না, যুবলীগ নেতা রাশেদুল ইসলাম সুমন সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে অতিথিরা বলেন, দৈনিক যায়যায়দিন পত্রিকা সব সময় সাধারন মানুষের কথা বলে। অন্যায়ের কাছে কখনো আপোষ করে না। তারা সত্য ঘটনা তুলে ধরার চেষ্টা করে বলেই যায়যায়দিন পত্রিকা আজও টিকে রয়েছে। একসময়ে এ পত্রিকাটি সারা দেশে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করেছিল। পত্রিকার সংবাদের জন্য মানুষ একটু হলেও হাতে তুলে প্রকাশিত সংবাদ পড়ার ইচ্ছেপোষন করতেন। একসময়ে যায়যায়দিন ম্যাগাজিন আকারে বের হতো। মানুষ খুব মজা করে হাতে নিয়ে পড়তো। সেই সময় পত্রিকাটি সারা দেশে খুব জনপ্রিয় ছিলো। আমরা চাই পত্রিকার যেই সুনাম রয়েছে কর্তৃপক্ষ যেন সেই সুনাম ধরে রাখেন এবং ভাল ভাল সংবাদ প্রকাশ করে দেশ ও জাতির মঙ্গলের জন্য কাজ করেন সেই প্রত্যাশা করছি। এছাড়া যায়যায়দিন পত্রিকার নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি একটি সুন্দর একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে সেজন্য তাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আর দৈনিক যায়যায়দিন পত্রিকার সাফল্য কামনা করছি এবং এ পত্রিকাটি শত বছর পূর্তি করা হবে, হয়তো আমরা ঐ সময় থাকবো না। তার পরও যায়যায়দিন পত্রিকাটি উজ্জল ভবিষ্যত কামনা করছি।

অতিথিরা আরও বলেন, সাংবাদিক জাতির বিবেক। সাংবাদিকদের লেখনির মাধ্যমে দেশ ও জাতির জন্য অনেক ভাল কিছুর করার রয়েছে। সারা দেশে প্রশাসন ও সাংবাদিক একটি সেতু বন্ধন রয়েছে। এই বন্ধন সব সময় টিকে থাকলে সমাজের ভাল কিছু প্রত্যাশা করা সম্ভব।

এদিকে সাংবাদিকদের উদ্দেশে প্রধান অতিথি ইউএনও নাহিদা বারিক বলেন, সাংবাদিকরা যেন সাংবাদিকতার পাশাপাশি ব্যবসা কিংবা উপার্জনের জন্য ভাল কিছু করেন। সাংবাদিকরা যদি আর্থিক ভাবে একটু সচ্ছ থাকেন তাহলে তাদের মেধা কাজে লাগাতে পারবেন। নারায়ণগঞ্জের সাংবাদিকদের মনের দিক দিয়ে অনেক ভাল। তাদের সাফল্য কামনা করেন তিনি।

0