না.গঞ্জে ২৩ কারখানায় ৬০ শ্রমিক করোনায় আক্রান্ত

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: তৈরি পোশাকশিল্পের ২৩টি কারখানায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৬০ জনে দাঁড়িয়েছে। ঈদের কয়েক দিন আগেও জেলার ১২টি কারখানায় ৪৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছিল।

গত ২৬ এপ্রিল থেকে পর্যায়ক্রমে সচল হয়ে ঈদের ছুটির আগ পর্যন্ত সচল হয়েছে প্রায় সাড়ে ৫‘শ শিল্প কারখানা। এ সময়ের মধ্যে ধীর গতিতে বাড়ছে শ্রমঘন শিল্প খাতে কভিড আক্রান্ত কর্মীর সংখ্যা।

শিল্প পুলিশের পরিসংখ্যান বিশ্লেষণে দেখা গেছে- সারা দেশের পোশাক কারখানার মধ্যে ঢাকার আশুলিয়ায় সবচেয়ে বেশি শ্রমিক আক্রান্ত হয়েছেন। আশুলিয়ার ২৬টি কারখানার ৬১ জন শ্রমিক আক্রান্ত হয়েছেন। এরপরের অবস্থানে থাকা নারায়ণগঞ্জে ২৩টি কারখানার ৬০ জন শ্রমিক আক্রান্ত হয়েছেন।

এ প্রসঙ্গে শিল্প পুলিশ সদরদফতর পুলিশ সুপার- এসপি মোহাম্মদ আমজাদ হোসেন বলেন, সারা দেশের পোশাক কারখানাসমূহ মনিটর করছে শিল্প পুলিশ। আক্রান্ত শ্রমিকদের আইসোলেশনে পাঠানোর পাশাপাশি যারা সংস্পর্শে আসছেন, তাদেরও কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হচ্ছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের গাইড লাইন মেনে। তবে মাঝে মাঝে শ্রমিকরা খুব একটা সতর্ক থাকছেন না।

অন্যদিকে, বাংলাদেশ নিটওয়্যার প্রস্তুত ও রপ্তানিকারক সমিতি- বিকেএমইএ প্রথম সহসভাপতি মোহাম্মদ হাতেম বলেন, যে সব কারখানার শ্রমিক আক্রান্ত হচ্ছেন, তাদের খোঁজখবর রাখছেন মালিকরা। আক্রান্ত শ্রমিকদের চিকিৎসার প্রয়োজনীয় অর্থ খরচও করছেন মালিকরা।

প্রসঙ্গত, নারায়ণগঞ্জে বিজিএমইএর (বাংলাদেশ তৈরি পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারক সমিতি) সদস্যভুক্ত ২৩৫ কারখানা, বিকেএমইএর (বাংলাদেশ নিটওয়্যার ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন) ৭৯২ কারখানা, বেপজার অধীনে থাকা ইপিজেডে ৪৮ কারখানা ও বিটিএমএর (বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস অ্যাসোসিয়েশন) ১৭২টি চলছে নারায়ণগঞ্জে।

0