না.গঞ্জ ও মুন্সিগঞ্জে ক্যাসিনোর ৩টি গ্যাম্বলিং মেশিন উদ্ধার

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ ও মুন্সিগঞ্জের দুইটি ব্যাটারি উৎপাদন কারখানায় অভিযান চালিয়ে হংকং ও ম্যাকাও এর ক্যাসিনোর গ্যাম্বলিং মেশিন ৩টি মাহাজং মেশিন উদ্ধার করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা।

সোমবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার লক্ষণখোলায় অবস্থিত ডংজিং লংজারভিটি ইন্ড্রাষ্ট্রি থেকে একটি এবং মুন্সিগঞ্জের নিউ হোপ এগ্রোটেক বাংলাদেশ নামের আরেকটি প্রতিষ্ঠান থেকে দুইটি মেশিন উদ্ধার করা হয। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সহিদুল ইসলাম।

সোমবার রাতে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দুপুরে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক মোহাম্মদ নেয়াজুর রহমান ও শামীমা আক্তারের নেতৃত্বে দুইটি গোয়েন্দা দল মুন্সিগঞ্জের নিউ হোপ এগ্রোটেক বাংলাদেশ লিমিটেড থেকে দুটি এবং নারায়ণগঞ্জের বন্দরের লক্ষখোলা এলাকায় অবস্থিত ডংজিং লংজারভিটি ইন্ড্রাষ্ট্রি (ব্যাটারী কারখানা) ক্যাসিনো খেলার ইলেকট্রিক মাহাজং মেশিন উদ্ধার করেন। ক্যাসিনো খেলার সামগ্রী দুটি কারখানায় উৎপাদিত পন্যের সাথে সামঞ্জস্যপুর্ণ না হলে তারা কেন এরুপ জুয়া খেলার মেশিন আমদানি করছে তা তদন্ত করে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়, প্রতিষ্ঠান দুটির আমদানিকৃত চালানের মাহাজং বি/ই পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, তারা অপেক্ষাকৃত কম মুল্যের ঘোষণায় শুল্কায়ন সম্পন্ন করে পন্য খালাস করেছেন। এতে আমদানি শুল্ক ফাঁকি দেয়ার প্রমান মিলেছে। এ বিষয়ে তদন্ত করে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, বাংলাদেশে মাহাজং আমদানির বেশ কিছু পন্য চালান শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের কর্তৃপক্ষ শনাক্ত করেছেন। এসব আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানগুলোকে শুনানির জন্য শুল্ক গোয়ন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরে তলব করা হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন বানিজ্যিক আমদানিকারক কর্তৃপক্ষ ক্যাসিনো খেলার সামগ্রী তথা মাহাজং আমদানির বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহন করা হচ্ছে।

0