নিরপেক্ষ ভোট করবো, না.গঞ্জ থেকে চলে যেতে হলেও: ডিসি

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ইভিএম মেশিনে একটা ভোট দিলে একটাই দেখাবে, একলাখ দিলে একলাখই দেখাবে। আমরা নিরপেক্ষ ভাবে কাজ করছি, করবো। যদি নিরপেক্ষ ভোট করতে গিয়ে নারায়ণগঞ্জ থেকে চলেও যেতে হয়, তাও আমরা করব। এই শহরের সম্মান রক্ষার দায়িত্ব সবার। আপনারা অভিযোগ জানাবেন, সত্যতা থাকলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নির্বাচনের স্বচ্ছতা, নিরপেক্ষতা নিয়ে এমন দূঢ় প্রত্যায় ব্যক্ত করেছেন নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক মেস্তাইন বিল্লাহ। রোববার (২ জানুয়ারি) সকালে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (এনসিসি) নির্বাচনের মেয়র, সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর, সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থীদের সঙ্গে নির্বাচন কমিশনের মতবিনিময় সভায় একথা বলেন তিনি।

মেস্তাইন বিল্লাহ বলেন, আমাদের প্রার্থীদের প্রায় সবারই অভিযোগ এখানে সুষ্ঠু ভোট হবে কিনা, ইভিএমে ভোট বদল হবে কিনা, কালো টাকার ছড়াছড়ি হবে কিনা। গত এক বছরে আমরা নারায়ণগঞ্জে সুষ্ঠু নির্বাচন করে দেখিয়েছি। আপনার ভোট আপনি যাকে খুশি তাকে দিতে পারবেন। এর জন্য যা যা করা দরকার করবো। এরই মধ্যে নয়জন ম্যাজিস্ট্রেট কাজ করছেন। নির্বাচনের আগে আরও ৩০ জন ম্যাজিস্ট্রেট আসবে। প্রতিটি ওয়ার্ডে ম্যাজিস্ট্রেট থাকবে।

তিনি আরও বলেন, কেউ নির্ধারিত সময়ের বাইরে মাইক চালাতে পারবেন না। আপনাদের নির্ধারিত সংখ্যায় ক্যাম্প করতে হবে। এর বেশি করে থাকলে রোববারের মধ্যেই সরিয়ে ফেলবেন। আপনারা না সরালে আমরা সরাব। তখন মিডিয়া দেখলে আপনারই ভোট কমবে। আপনারা সময় নষ্ট না করে, সাধারণ ভোটারদের কাছে যান। তারা আপনাকে ভোট দিলে অবশ্যই জিতবেন।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের রিটানিং অফিসার মাহফুজা আক্তারের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় ছিলেন প্রধান অতিথি বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনার মো. রফিকুল ইসলাম, বিশেষ অতিথি নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো. মোস্তাইন বিল্লাহ, জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম, জেলা নির্বাচন অফিসার মতিয়ুর রহমান।

মতবিনিময় সভায় স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার, ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী মাসুম বিল্লাহ, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির প্রার্থী মো. রাশেদ ফেরদৌস, খেলাফত মজলিসের প্রার্থী এ বি এম সিরাজুল মামুন, বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের প্রার্থী জসিম উদ্দিন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী কামরুর বাবু সহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। তবে, আলোচিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী উপস্থিত ছিলেন না।