পাক-শাসনামলেও এমন বিচারহীনতা আমরা দেখিনি: রফিউর রাব্বি

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ‘এই সরকারের শাসনামলে বিচারহীনতা প্রাতিষ্ঠানিক রূপলাভ করেছে। স্বাধীনতার পূর্বে ও পরের সকল রেকর্ড তারা ভঙ্গ করেছে। পাক-শাসনামলেও এমন বিচারহীনতা আমরা দেখিনি। দেশের গোটা বিচারব্যবস্থাকেই আজকে প্রশ্নবিদ্ধ করেফেলা হয়েছে।’

শনিবার (৪ মে) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে একথা বলেন সাংস্কৃতিক সংগঠক ও সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের আহ্বায়ক রফিউর রাব্বি। নারায়ণগঞ্জের গৃহবধু বৃষ্টি রানী চৌধুরী হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধনটির আয়োজন করে নারায়ণগঞ্জ নাগরীক কমিটি।

মানব বন্ধনে সাংস্কৃতিক সংগঠক ও সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের আহ্বায়ক রফিউর রাব্বি বলেন, যৌতুকের কারনে বৃষ্টিকে হত্যা করা হলেও পুলিশ প্রশাসন অপরাধীদের রক্ষার জন্য এইটিকে ভিন্ন খাতে নেয়ার চেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। বৃষ্টির পরিবারের দাবির পরেও এটিকে হত্যা-মামলা হিসেবে গ্রহণ না করে আত্মহত্যার প্ররোচনা হিসেবে মামলা গ্রহণ করেছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট প্রদানকারী চিকিৎসকও স্ববিরোধী বক্তব্য দিয়েছেন। তিনি বলছেন, দেহে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে, আবার বলছেন এইটি আত্মহত্যা। এভাবে বলার কোন অধিকারই তার নেই। আজকে অর্থ ও পেশীশক্তির কাছে স্বাধীন বিচার ব্যবস্থা মুখ-থুবরে পড়ছে।

সংগঠনের সভাপতি এড. এবি সিদ্দিকের সভাপতিত্বে মানব বন্ধনে বক্তব্য রাখেন বৃষ্টি রানীর ভাই মিঠুন চৌধুরী, খেলাঘর নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি রথীন চক্রবর্তী, নারীনেত্রী শোভা সাহা, বাসদ জেলা সমন্বয়ক নিখিল দাস, ন্যাপের জেলা সম্পাদক এড. আওলাদ হোসেন সিপিবি জেলা সম্পাদক শিবনাথ চক্রবর্তী, সমমনা সামাজিক সংগঠনের সভাপতি দুলাল সাহা ও নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক ধীমান সাহা জুয়েল।

এসময় বক্তারা বৃষ্টি হত্যার ঘটনাকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার অভিযোগ এনে প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমানের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন শিশু সংগঠক জহিরুর ইসলাম, নাগরিক কমিটির কোষাধ্যক্ষ আবদুল হাই, সদস্য মো: হাফিজুল হক, ডাচ বাংলা ব্যাংকের বঙ্গবন্ধু রোড শাখার ডেপুটি ম্যানেজার মো: জুলহাস প্রমূখ।

সভাপতির বক্তব্যে এড. এবি সিদ্দিক বলেন, দেশে নারী নির্যাতন ভয়াবহ আকারে বৃদ্ধি পেলেও সরকারের সে দিকে তেমন নজর নেই। সংঘঠিত অপরাধের বেশীর ভাগই মামলা হয় না। যে সবের মামলা হয় তাতেও অপরাধীরা আইনের ফাক ফোঁকরে রেড়িয়ে যায়, তাদের সাজা হয় না। এ কারনেই অপরাধ না কমে ক্রমাগত তা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

0