পার্লার কর্মীকে রাতভর ধর্ষণ: নৌকার মাঝিকে খুঁজছে পুলিশ

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বন্দরে পার্লার কর্মীকে রাতভর ধর্ষণের ঘটনায় সহযোগী অজ্ঞাতনাম নৌকার মাঝিকে খোঁজছে পুলিশ। পাশাপাশি আরেক সহযোগী আরাফাত আকনের অবস্থান জানতে চাইছে।

সোমবার (২৭ জানুয়ারি) সকালে সন্ধান জানতে ধর্ষণ মামলার মূল আসামী জুট ব্যবসায়ী মনির হোসেনকে আদালতে উঠায় পুলিশ।

ধর্ষণের অভিযুক্ত ব্যক্তি জুট ব্যবসায়ী মো. মনির হোসেন (২৮)। বন্দর থানার একরামপুর ইস্পাহানি এলাকার মৃত আব্দুল মালেক সরদারের ছেলে।

পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, ধষিতা ওই নারীর সাথে ধর্ষক মনিরের পরিচয় হয় স্বামীর মাধ্যমে। গত ৪ জানুয়ারি রাত সাড়ে ১১টার দিকে হাসপাতাল থেকে বাসায় ফেরার পথে একরামপুর ইস্পাহানি ঘাটে দেখা হয় তাদের। এ সময় ওই নারীকে মনির নদী পার করে দেওয়ার কথা বলে নৌকায় উঠায়। পরে নদী পার না করে কু-প্রস্তাবদেন। রাজি না হওয়ায় নৌকার মাঝির সহযোগীতায় জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। পরবর্তীতে আরফান আকনের সহযোগীতায় জোট গোডাউনে নিয়ে রাত সাড়ে ১২টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত আরো কয়েক দফা ধর্ষণ করেন।

আদালতকে বন্দর পুলিশ ফাঁড়ীর ইনচার্জ মো. মোস্তাফিজুর রহমান জানান, মামলার সুষ্ঠ তদন্ত ও ন্যায় বিচারের স্বার্থে পলাতক আসামী গ্রেপ্তার ও অজ্ঞাতনামা আসামীকে সনাক্ত করার লক্ষে রিমান্ডে নিয়ে ব্যাপক ও নিবিড় ভাবে জিজ্ঞাসাবাদ প্রয়োজন ছিল।

পরে শুনানী শেষে এক রিমান্ড মঞ্জুর করে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নুরুন্নাহার ইয়াসমিন এর আদালত।

0