পিকনিকের বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছে ধাক্কা, নিহত ৮

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ থেকে কক্সবাজার যাওয়ার পথে ফেনীর লেমুয়ায় একটি পিকনিকের বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ৮ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও অন্তত ২০ জন। এদের মধ্যে গুরুতর আহত অবস্থায় ৭ জনকে ঢাকায় আনা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ আগস্ট) ভোরে সদর উপজেলার লেমুয়া ইউনিয়নে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের লেমুয়া ব্রিজের কাছে তিব্বতিয়া কলেজের সামনে এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও আহতরা জানায়, বুধবার রাতে নারায়ণগঞ্জের আদমজি থেকে কক্সবাজারে ভ্রমণের উদ্দেশে প্রাইম প্লাস পরিবহনের একটি বাস (ঢাকা মেট্রো-ব ১৪-৭৫৭৮) যাত্রী নিয়ে ছেড়ে রাত আড়াইটার দিকে রাজধানীর মিরপুরে যায়। সেখান থেকে আরও কয়েকজনকে নিয়ে কক্সবাজারের উদ্দেশে রওনা দেয়। বৃহস্পতিবার ভোর পৌনে ৬টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের লেমুয়া এলাকায় পৌঁছলে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের গাছের সঙ্গে ধাক্কা খায়। এতে বাসটির সামনের অংশ দুমড়ে-মুচড়ে গিয়ে ঘটনাস্থলেই ছয়জন নিহত হন। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় একজন এবং ঢাকায় আনার পথে আরও একজন মারা যায়।

নিহতদের মধ্যে দুইজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। এরা হলেন ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলার শাহাদ হোসেন (৩০) ও বিক্রমপুরের সুজন (২৮)। অন্যদের নাম-পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

আহতদের মধ্যে ২৫০ শয্যার ফেনী আধুনিক সদর হাসপাতালে ঢাকার মিরপুরের বাসিন্দা আখতার (২২), অপু (২৫), ইকবাল (৩৮), দুলাল (২৭), সকিনা (৬৫), নারায়ণগঞ্জের আদমজী এলাকার আছমা (১৮), ফয়সাল (২৩), মুন্না (৫০), আজম (১৮), দুলাল (১৩), মাদারীপুরের আলী আছমতের ছেলে রিপন (৩০), টঙ্গীর আবদুল্লাহ শেখের ছেলে রিপন (৪০) চিকিৎসা নিচ্ছেন।

ফেনী আধুনিক সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. আবু তাহের পাটোয়ারী জানান, নিহতদের মরদেহ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। গুরুতর আহতদের ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। বাকিদের এখানে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

ফেনীর মহিপাল হাইওয়ে থানার এসআই কাউছার রহমান সড়ক দুর্ঘটনায় ছয়জন নিহতের কথা নিশ্চিত করেছেন। তবে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও দুইজনের মৃত্যুর খবর জেনেছেন কিন্তু নিশ্চিত করতে পারেননি তিনি।

দুর্ঘটনাকবলিত বাসটি উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানান এসআই কাউছার।

0