পুনর্বাসন ছাড়া না.গঞ্জে থান কাপড়ের মার্কেট উচ্ছেদ না করার দাবী (ভিডিওসহ)

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: পুনর্বাসন ছাড়া নারায়ণগঞ্জে রেলওয়ের জমিতে গড়ে ওঠা থান কাপড়ের পাইকারি মার্কেট উচ্ছেদ না করার দাবী জানিয়েছে মার্কেটের ব্যবসায়ীরা। তারা মার্কেটের ভেঙ্গে দেয়া অংশ ব্যবসায়ীদের বৈধভাবে মার্কেট নির্মাণ করে দেয়ার দাবী জানিয়ে বলেন, এতে ব্যবসায়ীরা উপকৃত হবে। পাশাপাশি সরকারেরও আয় বাড়বে।

বুধবার সকালে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত এক মানববন্ধন থেকে ব্যাবসায়ীরা এ দাবী জানান।

মানববন্ধনে বক্তারা আরো বলেন, রেলওয়ে সুপার মার্কেট নারায়ণগঞ্জের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় অবস্থিত। এখানে সহ¯্রাধিক ব্যবসায়ী ও প্রায় বিশ সহ¯্রাধিক শ্রমজীবী মানুষ কর্মরত আছেন। ১৯৯২ সালে রেলওয়ের কাছ থেকে অনুমতি নিয়ে পরিত্যাক্ত পুকুর বালু দিয়ে ভরাট করে এখানে মার্কেট নির্মাণ করা হয়। এখানকার মূল ব্যবসা থানকাপড়। এ থান কাপড় এবং এ থেকে তৈরী পণ্য দেশীয় প্রয়োজন মিটিয়ে সৌদি আরব, আরব-আমিরাত, মালয়েশিয়া, ভারত, ফিলিপাইনসহ এশিয়া ও ইউরোপে রপ্তানী করা হয়। যার মাধ্যমে বিপুল পরিমান বৈদেশিক মুদ্রা আয় হয়। সরকারও মোটা অংকের আয়কর পেয়ে থাকে। এ এলাকার সকল ব্যবসায়ী সিটি কর্পোরেশনের ট্রেড লাইসেন্স ফি দিয়ে ব্যবসা করছে। মার্কেট প্রতিষ্ঠার পর থেকেই ব্যাবসায়ীরা রেলওয়ের নির্ধারিত খাজনা জনতা ব্যাংকে ডিডির মাধ্যমে পরিশোধ করে আসছে। কিন্তু ২০১৩ সালের পর রেলওয়ে খাজনা নেয়া বন্ধ করে দেয়। এ বছরের গত ১৭ অক্টোবার ২নং রেলগেইটে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রেলরুটে ডাবল লাইন বসানোর জন্য ঘোষনা দিয়ে লাইনের দক্ষিন পাশে ৪৫ ফুট পর্যন্ত উচ্ছেদ করা হয়। জনস্বার্থে রেলের ডাবল লাইনের কাজ চলছে আমরা একে সাধুবাদ জানাই।

গত ২৪ অক্টোবর রেলমন্ত্রী নারায়ণগঞ্জে এসে বলেছিলেন যতটুকু প্রয়োজন তার অতিরিক্ত কোন স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে না। কিন্তু দুঃখের বিষয় গত ৩১ অক্টোবর কোনো কারন ছাড়াই আগের ঘোষনার অতিরিক্ত আরও বিশাল এলাকায় রেলওয়ে উচ্ছেদ অভিযান চালায়। শোনা যাচ্ছে আগামীতে পুরো এলাকাটিই উচ্ছেদ করা হবে। ইতিমধ্যে উচ্ছেদ অভিযানের কারনে এখানে থান কাপড়ের ব্যবসা বন্ধ হয়ে গেছে। উপর্জনহীন হওয়ায় এলাকার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ও শ্রমজীবীদের পরিবারের সদস্য মিলিয়ে লক্ষাধিক মানুষ মানবেতর জীবন যাপন করছে।

মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন রেলওয়ে মার্কেট ব্যবসায়ী আলহাজ্ব জাহাঙ্গীর আলম। বক্তব্য রাখেন রেলওয়ের ভূমি মালিক সমিতির সভাপতি বদিউজ্জামান বদু, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী দোকান মালিক সমিতির সভাপতি দুলাল মেম্বার, সাধারন সম্পাদক মোঃ আবুল হোসেন। আরও বক্তব্য রাখেন পনির মোহাম্মদ, মোঃ বাচ্চু, মোঃ রুবেল আহম্মেদ, মোঃ লীলু মিয়া, শিহাব উদ্দিন স্বপন, মোঃ আরিফ প্রমুখ। সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক বাসদ নেতা সেলিম মাহমুদ। সমাবেশে সঞ্চালনা করেন এস.এম. কাদির।

0