পুলিশের কা‌ছে ধরিয়ে দেওয়ার স‌ন্দে‌হে বাবাকে মারধর, ছেলেকে হত্যা

0

স্টাফ করেসপন্ডন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: পুলিশের কা‌ছে ধরিয়ে দেওয়া হয়েছিল; এমন সন্দেহ বাবা ফারুককে মারধর করে মাদক ব্যবসায়ীরা। সেই মারধরের প্রতিবাদ করায় ছেলে শুভকে হত্যা করা হয়।

বৃহস্পতিবার (১৩ আগষ্ট) এ ঘটনায় অভিযুক্ত প্রধান আসামীকে আদালতে উঠিয়ে ৭ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ। পরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে সিনিয়ন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদুল মোহসীনের আদালত।

রিমান্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তি হলেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার শিমরাইল মধ্যপাড়া বৌ বাজার এলাকার মৃত আজিজ মিয়ার ছেলে মো. আনিছ (১৯)।

এর আগেও তাকে আরও ১ বার রিমান্ডে নেওয়া হয়েছিল।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, আসামী আনিছ এলাকার একজন মাদক ব্যবসায়ী। সে মাদকসহ ডিবি পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছিল। ২০২০ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি জামিনে এসে নিহত শুভর পিতা ফারুককে সন্দেহ করে মারপিট করে। পরে ফারুকের বন্ধু জুম্মন ও বড় ছেলে শুভ আনিছসহ আসামীদের কাছে মারধরের কারণ জানতে চায়। এক পর্যায়ে শুভকে হত্যার উদ্দেশ্যে রড দিয়ে আগাত করতে থাকে। তাদের ডাক চিৎকারে আশেপাশের লোক জন ছুটে আসলে আসামীরা পালিয়ে যায়। এরপর লোকজন এসে শুভকে সাজেদা হাসপাতালে নিয়ে গেছে। সেখানে থাকা কর্মরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে রেফার্ড করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভিকটিমের মৃত্যু হয়।

পরে শুভর মাতা মোসা. শাহানাজ বেগম বাদী হয়ে মোট ১৪ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ৩/৪ জন আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

এজাহার নামায় উল্লেখিত আসামিরা হলেন – আনিছ (১৯), জনি (২৮), বৃথী আক্তার (২৫), সজীব (১৯), টিটু (২৬), অনিক (১৯), হাসু বেগম (৪০), নজুরুল (৪৮), শাকিল (২০), শান্ত (২৩), হৃদয় (১৯), রবিন (১৯), মারিয়া (২০), আতিক (২৫)।

0