এসপি হারুনের অভয় ‘সেই দিন আর নেই’

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: যারা সমাজে দুর্নীতি করছেন, মানুষদের বিভিন্ন ফায়দায় লুটছেন তাদের বিরুদ্ধে আমরা কাজ করছি। যেই লোকটি কোথাও গেলে বিচার পায় না। কোন কাউন্সিলরের কাছে গেলে বিচার পায় না। আমাদের কাজ হচ্ছে সেই অসহায় মানুষদের সহযোগিতা করা। আজকে সাধারণ মানুষ প্রশাসনের কাছে গিয়ে বিচার দিতে পারছে, আগে সেই সুযোগ ছিল না। আজকে পুলিশ ঘুরে দাড়িয়েছে।

নারায়ণগঞ্জে পুলিশের পরিবর্তনের কথা এভাবেই জানাচ্ছিলেন আলোচিত পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ। শনিবার (২৪ আগস্ট) রাতে শহরের দেওভোগে কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘের (ইসকন) উদ্যোগে আয়োজিত শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী মহোৎসব উপলক্ষে আলোচনা সভায় তিনি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

পুলিশ সুপার বলেন, বড় ভাইদের ভয়ে কারো কাছে যেতে পারেন না৷ সেই দিন আর নাই৷ আপনার ভাববেন পুলিশ আছে৷ পুলিশ চলে যাবে, তারপর তো আমাদের উপর নির্যাতন শুরু হবে। না, সেই দিন আর নেই৷ আপনারা নিশ্চিত থাকতে পারেন এখন পুলিশ ঘুরে দাঁড়িয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আজকে আপনারা সাহায্য করছেন বলেই ওই সকল মাদক ব্যবসায়ীরা, ভূমিদস্যু যারা অন্যের জমি দখল করে, ফ্লাট দখল করে, ইয়াবার ব্যবসা করে, ভাইদের ছত্রছায়ায় জমি দখল করে তাদের বিরুদ্ধে আমাদের সংগ্রাম চলছে। আর আপনারা যদি অসহায় থাকেন, আপনারা যদি বিচার দিতে না পারেন কিংবা বড় ভাইদের ভয়ে কারো কাছে যেতে না পারেন তাহলে আপনাদের চাহিদা মতো আমরা কাজ করে যেতে পারবো না। আজকে প্রত্যেকটি পুলিশ কাজ করছে সাধারণ মানুষকে সেবা দেয়ার জন্য। আমি চলে গেলাম বলে আপনাকে অত্যাচার করবে, সেই সুযোগ কেউ পাবে না।

হারুন অর রশীদ বলেন, আগস্ট মাসে একদিকে জন্মাষ্টমী অন্যদিকে আগস্ট মাস। এই আগস্ট মাসে হত্যা করা হয়েছিল জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে। তিনি সম্প্রীতির একটি বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখেছিলেন। যারা অন্য ধর্মের মানুষদের দেখতে পারে না, তারাই এই হত্যাকান্ড ঘটিয়েছিল। বর্তমানে তারাই আবার উগ্রবাদী কায়দায় মসজিদ, মন্দির, মাদ্রাসা, ঈদগাহে হামলা করে দেশের পরিবেশ নষ্ট করতে চাইছে। সাম্প্রদায়িকতার উর্ধ্বে গিয়ে দেশ পরিচালনার মনোভাব বঙ্গবন্ধুর ছিল। তা সেই উগ্রবাদীরা চায় নাই বলেই ৭৫ এর ১৫ই আগস্ট হত্যাকান্ড ঘটিয়েছিল।

শ্রী রাধাগোবিন্দ মন্দিরের অধ্যক্ষ শ্রীপদ হংসকৃষ্ণ দাস ব্রক্ষ্মাচারীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নূরে আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুবাস সাহা ও জেল সুপার সুভাষ ঘোষ। আরও উপস্থিত ছিলেন ১৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শফিউদ্দিন প্রধান, তোলারাম কলেজের সাবেক উপাধ্যক্ষ নৃপেন্দ্র নাথ ভদ্র, নারায়ণগঞ্জ জেলা ইসকনের সাবেক সভাপতি রঞ্জিত কুমার দাস, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শিখন সরকার, মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অরুন দাস, হিন্দু কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি পরিতোষ কান্তি সাহা প্রমুখ।

0