প্রতারণা মামলায় কারাগারে রোমান, বাদির উপর সহযোগীদের হামলা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বিচার প্রাপ্তির আশায় দারস্ত হয়েছিলো আদালতে। কিন্তু সেখানেই হয়েছে হামলার শিকার! সকলের সামনেই আসামী পক্ষের হুমকি, ‘মামলা পরিচালনা করলে করা হবে খুন আর পরিবারের সদস্যদের হয়রানী’।

আহত ভুক্তভোগী মো. সালেহ মাহমুদ উজ্জল জানান, ‘এখন নিজের ও পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত ’।

নারায়ণগঞ্জের আদালতপাড়ায় বৃহস্পতিবার (১৯ মে) দুপুর সাড়ে ১২টায় এই ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর নিরাপত্তা চেয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়রী (জিডি নং ১০২৪) করা হয়েছে।

অভিযুক্তরা হলেন- ফতুল্লার এনায়েত নগর ধর্মগঞ্জ এলাকার মৃত. আবুল হাসেমের ছেলে নজরুল ইসলাম হীরু (৪৭), একই এলাকার ফুলচাঁন মিয়ার ছেলে আলম পারভেজ (৪২), মৃত. বাচ্চু মিয়ার ছেলে কাইল্লা আমিন (৪৮)সহ আরও ২ থেকে ৩ জন।

জানা গেছে, সামসুল হক পন্ডিতের ছেলে আরিফুর রহমান রোমানের কাছে ১৪ লাখ টাকা পেতেন ভুক্তভোগী মো. সালেহ মাহমুদ উজ্জল। সেই পাওনা টাকা না দেওয়ায় ২০২১ সালে ৪২০/৪০৬/৫০৬ দারায় আদালতে মামলা দায়ের (মামলা নং-১০৯২) করেন। সেই মামলায় আদালতের কাছে আসামী অঙ্গীকার করেন, পাওনা টাকা ২০২২ সালের ১৯ মে মধ্যে পরিশোধ করবে। কিন্তু সেই টাকা পরিশোন না করে হাজিরা দিলে আদালত জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণ করেন আরিফুর রহমান রোমানকে।

ভুক্তভোগী মো. সালেহ মাহমুদ উজ্জল জানান, আদালত থেকে বের হওয়ার সময় অভিযুক্তরা আমার উপর হামলা করে। এলাপাথারী কিল, ঘুষি, চড়, থাপ্পর মারতে থাকে। বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি ও জীবন নাশের হুমকি প্রদান করে। পরবর্তীতে মামলা পরিচালনা করলে খুন করার হুমকি দেয়, মিথ্যা মামলায় পরিবারের সদস্যদের ফাঁসানোর হুমকি দেয়। এ সময় আইনজীবী সমিতির নেতা এড. আব্দুল মান্নান ও আরো আইনজীবী উদ্ধার করে। এখন আমি ও আমার পরিবার শঙ্কিত। তাই আইনের আশ্রয় নিয়েছি।