প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেপ্তার

0

ফতুল্লা করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ‘প্রবাসীর স্ত্রীকে সাত দিন আটকে রেখে ধর্ষণ’র অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে ফতুল্লা পুলিশ।

ফতুল্লা থানার শিয়াচরের লালখাঁ এলাকা থেকে বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তির নাম আকাশ (২৫)। সে শরিয়তপুর জেলার নড়িয়া থানার চর মোহন লাউরানির সোবহান হাওলাদারের পুত্র ও ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের চুন কুটিয়ার সোহাগের বাড়ীর ভাড়াটিয়া।

অভিযোগে সেই নারী উল্লেখ করা হয়, প্রবাসীর স্ত্রী ওই নারী চার সন্তানের জননী। ফতুল্লার লালপুর এলাকার একটি ভাড়া বাসায় সন্তানদের নিয়ে বসবাস করতেন। অভিযুক্ত আকাশ ওই নারীর স্বামীর নিকটাত্নীয় হওয়ার সুবাধে মোবাইল ফোনে প্রায় সময় তাদের কথা হতো। প্রায়ই লালপুরের বাসাতে আসতেন। এরই ধারাবাহিকতায় ১৩ সেপ্টেম্বর সকাল ৮ টার দিকে আকাশ এবং তার বোন সিএনজি যোগে বাদীর লালপুর বাসায় আসে। পরে কৌশলে আকাশদের কেরানীগঞ্জের ভাড়া বাসায় নিয়ে যায়। সেখানে ফাঁকা বাসায় আকাশ বিকেলে প্রথমবার সেই নারীকে ধর্ষণ করেন। এরপর আটকে রেখে ২০ সেপ্টেম্বর রাত্র দুইটা পর্যন্ত তাকে একাধিকবার ধর্ষন করেছেন। ২০ তারিখ রাত্র আড়াইটার দিকে বাদী পালিয়ে নিজ বাসা লালপুরে চলে আসে।

ফতুল্লা মডেল থানার কর্মকর্তা ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা হুমায়ন কবির(২) জানান, ধর্ষনকারীর কবল থেকে পালিয়ে এসে ভুক্তভোগী নারী ফতুল্লা থানায় মামলা দায়ের করেছে। মামলার প্রধান আসামী আকাশ কে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার দুপুর বারোটার দিকে ফতুল্লা থানার শিয়াচর লালখাঁ এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মামালায় অভিযুক্ত অপর আসামীকে গ্রেপ্তার অভিযান অব্যহাত রয়েছে বলে তিনি জানান।

0