প্রশাসনের কঠোর অবস্থানেও শ্রমিকদের অবরোধ ও বিক্ষোভ

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়াণগঞ্জ: সিদ্ধিরগঞ্জে নির্ধারিত সময়ে বেতন না দেয়ায় বিক্ষুব্দ শ্রমিকরা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করতে সক্ষম হয়েছে।

মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) দুপুরে সিদ্ধিরগঞ্জের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক সংলগ্ন মাদানীনগর এলাকাস্থ আল-আমিন গার্মেন্টসে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সাইদুজ্জামান জানায়, আজ আল আমিন গার্মেন্টসের সাড়ে পাঁচশত শ্রমিকের বেতন দেওয়ার নির্ধারিত দিন ধার্য্য ছিল। সারাদেশে করোনা ভাইরাসের প্রাদূর্ভাবের কারণে সরকারী ছুটি ঘোষণা করায় সকল শিল্প প্রতিষ্ঠান এবং যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ রয়েছে। এরই মধ্যে ব্যবসায়ী নেতাদের সিদ্ধান্তে রবিবার গার্মেন্টস ফ্যাক্টরীগুলো চালু করায় যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ থাকার পরও শ্রমিকরা দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কষ্ট করে কর্মস্থলে যোগদান করার জন্য চলে আসে। কিন্তু একদিন চলার পর আবারও ফ্যাক্টরীগুলো বন্ধ করে দেয়া হয়। কিন্তু বেতন পরিশোধের জন্য এখনও অনেক ফ্যাক্টরী চালু রয়েছে। আজ বেতন দেয়ার কথা থাকলেও শ্রমিকদেরা বেতন না পেয়ে দুপুরে উত্তেজিত হয়ে উঠে এবং তারা মহাসড়কে গিয়ে রাস্তা অবরোধ করে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করার চেষ্টা চালায়।

তিনি আরও বলেন, খবর পেয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ ও শিল্প পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদেরকে বুঝিয়ে ফ্যাক্টরীতে নিয়ে যাই। পরে মালিক পক্ষের সাথে কথা বলে জানতে পারি তাদের বেতনের চেক দেয়া হয়েছে কিন্তু ব্যাংক থেকে টাকা ক্যাশ করতে না পারায় বেতন পরিশোধ করা সম্ভব হয়নি। একপর্যায়ে আমি ফ্যাক্টরীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মিজানুর রহমানের সাথে ভিডিও কলিংয়ের মাধ্যমে শ্রমিকদেরকে কথা বলিয়ে আগামী কাল তাদের বেতন দেয়ার আশ্বাস দিলে তারা যার যার বাসায় চলে যায়।

ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মিজানুর রহমান জানায়, করোনা পরিস্থিতির কারণে মাত্র দুই ঘন্টা ব্যাংক খোলা থাকে সেজন্য আমরা ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন করতে পারি নাই। বুধবার শ্রমিকদেরকে বেতন দেয়া হবে।

0