ফকির নীটওয়্যারের ৪শ্রমিকের মুক্তি

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লা ফকির নীটওয়্যার লিমিটেডের ৪শ্রমিক কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন।

মুক্তিপ্রাপ্ত ৪ শ্রমিক হলেন- শফিকুল ইসলাম, মামুন, দেলোয়ার হোসেন ও ইছব।

তাদের মুক্তির সংবাদে ১ জুলাই নারায়ণগঞ্জ শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সমাবেশ করে ফকির নীটের অর্ধশতাধিক শ্রমিক।

তারা ভার্চুয়্যাল কোর্ট থেকে জামিনে মুক্তি লাভ করেছেন।

এসময় মুক্তিপ্রাপ্ত শ্রমিকদের পুষ্পমাল্য দিয়ে আনন্দিত করে শ্রমিক নেতৃবৃন্দ।

বুধবার লাইভ নারায়ণগঞ্জকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

কারামুক্ত শ্রমিকদের অভিনন্দন জানিয়ে বক্তব্য রাখেন গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র’র কেন্দ্রীয় নেতা দুলাল সাহা, নাঃগঞ্জ জলা কমিটির সভাপতি এম এ শাহীন ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন।

সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন- পোশাক কারখানার মালিকরা পরিকল্পিতভাবে শিল্পে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে মিথ্যা মামলা দিয়ে শ্রমিকদের গ্রেফতার হয়রানি করছে। দুর্যোগ পরিস্থিতির মধ্যে অমানবিক ভাবে শ্রমিকদের চাকুরিচ্যুত করে তাদের আইনি পাওনা থেকে বঞ্চিত করে চলেছে। মালিকদের এই অন্যায় ও জুলুমের প্রতিবাদ জানিয়ে তারা বলেন- যে শ্রমিকরা অর্থনীতির চাকা ঘুরায় সেই শ্রমিকদেরকে এই দুঃসময়ে কর্মহীন করা ও শ্রমিক স্বার্থবিরোধী কোন চক্রান্ত মেনে নেয়া হবে না। শ্রমিকদের জীবন-জীবিকা নিয়ে নিষ্ঠুর খেলা বন্ধ করে সরকার ও কারখানা মালিকদের দায়িত্বশীল পদক্ষেপ নিতে হবে। মহামারিকালে যেসব শ্রমিকদের ছাঁটাই করা হয়েছে তাদেরকে চাকুরিতে পুর্নবহাল করতে হবে নয়তো শ্রম আইন অনুযায়ী চাকুরির ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। তা না হলে তীব্র আন্দোলন গড়ে তুলে দাবি দায় করা হবে।

নেতৃবৃন্দ আরও বলেন- পোশাক কারখানা গুলোতে স্বাস্থ্য বিধি মানা হচ্ছে না যার ফলে শ্রমিকরা ব্যাপকভাবে করোনা আক্রান্ত হচ্ছে। তাদের জীবন রক্ষায় স্বাস্থ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে এবং আক্রান্তদের চিকিৎসা ও চাকুরির নিশ্চয়তা দিতে হবে। নেতৃবৃন্দ শ্রমিক ছাঁটাই, হয়রানি বন্ধ ও ফকির নীটের মিথ্যা মামলা তুলে নেওয়া সহ সকল কারখানা শ্রমিকদের বকেয়া পাওনা পরিশোধ এবং প্রস্তাবিত বাজেটে শ্রমিকদের বাসস্থান-রেশনিং ও চিকিৎসার জন্য আলাদা বরাদ্দ অন্তর্ভুক্ত করে চুড়ান্ত বাজেট প্রণয়নের দাবি জানান।

এলএন/এইচএস/০৭০১-০৬

0