ফতুল্লায় ধর্ষিতা শিশুর নিথর দেহ রেখে পালাল ধর্ষক

0

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় পাঁচ বছর বয়সী এক শিশুকে ধর্ষন করা হয়েছে। ধর্ষনের ফলে শিশুটি গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে পড়লে ধর্ষক সোহেল পালিয়ে যায়। ঘটনার পর ধর্ষকের ঘরে গিয়ে শিশুটিকে নিথর অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে শিশুর মা চিৎকার করে। এসময় আশপাশের লোকজন এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ শহরের ১০০ শয্যা ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছে।

শুত্রবার রাতে উপজেলার পাগলা রেলষ্টেশন বৈরাগী বাড়ি এলাকায় এঘটনা ঘটে। ধর্ষক সোহেল(২৬) ফতুল্লার পাগলা বৈরাগী বাড়ি এলাকার আলমগীরের বাড়ির ভাড়াটিয়া আবুল শরীফের ছেলে।

ধর্ষনের শিকার শিশুর পরিবারের বরাত দিয়ে ফতুল্লা মডেল থানার এসআই আরিফুর রহমান জানান, শিশুটির বাবা সিএনজি চালক আর মা গৃহীনা। ধর্ষক সোহেল তাদের পাশের বাড়ির ভাড়াটিয়া। দীর্ঘদিন পাশাপাশি থাকায় সোহেল শিশুটিকে ভাতিজী বলে ডাকতেন এবং তার ঘরে ডেকে নিয়ে শরীর টিপাতো। শুক্রবার রাত ৮টায় শিশুটিকে সোহেল তার ঘরে ডেকে নেয়। এরপর কৌশলে শরীর টিপার কথা বলে ধর্ষন করে। এতে শিশুটি গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে পড়লে ধর্ষক সোহেল পালিয়ে যায়। এসময় শিশুটির মা সোহেলের ঘরে গিয়ে শিশুটিকে নিথর হয়ে পড়ে থাকতে দেখে চিৎকার করে। এরপর আশপাশের লোকজন ছুটে এসে শিশুটিকে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

তিনি আরো জানান, ধর্ষক সোহেলকে গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে। শিশুটি ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

0