ফতুল্লায় প্রেম ক‌রে বিয়ের ৫ মাসে কিশোরীর আত্মহত্যা, থানায় মামলা

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ : প্রেমের সম্পর্কে পরিবার ছেড়ে পালিয়ে গিয়ে, গোলাম রাব্বির(২২) সঙ্গে বিয়ে করেন সুবর্ণা আক্তার টুম্পা ওরফে বৃষ্টি (১৫)। বিয়ের ৫ মাসের না পেরুতেই শ্বশুরবাড়িতে আত্মহত্যা করেন বৃষ্টি, যার কারণ কেউই বলতে পারছেনা।

২৪ সেপ্টেম্বর ( বৃহস্পতিবার ) ফতুল্লার কাশিপুর খিল মার্কেট এলাকার বৃষ্টি’র শ্বশুর বাড়ি থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

বৃষ্টি খিলমার্কেট এলাকার আবু সিদ্দিকের মেয়ে। ৫ মাস আগে প্রেমের সম্পর্কে একই এলাকার আসাদ মিয়ার ছেলে রাব্বির সাথে তার বিয়ে হয়।

বৃষ্টির বড় ভাই মেহেদী হাসান নাহিদ বলেন, দুপুর ১টায় আমি আমার বোনের জন্য পুরি কিনে ওর বাসায় যাই। গিয়ে দেখি ওর ফ্ল্যাটের দরজা খোলা। আর ফ্যানের সঙ্গে বৃষ্টির লাশ ঝুলছে। সে সময় বাসায় পরিবারের কেউ ছিল না। পরে আমি পরিবারের সবাইকে খবর দেই এবং থানায় জানাই। তিনি বলেন, পালিয়ে গিয়ে পছন্দের ছেলের সাথে বিয়ে করেছিল বৃষ্টি। শ্বশুরবাড়িতে কিংবা অন্য কোথাও কোনো ঝামেলা হইছে কিনা সেটা আমরা জানি না। আত্মহত্যার কোনো কারণ দেখছি না।

নিহতের স্বামী গোলাম রাব্বি ও শাশুড়ি লাভলী বেগম বলেন, আমাদের পরিবারে কোনো রকম ঝগড়া-বিবাদ ছিল না। আশেপাশের কারো সঙ্গেও কোনো সমস্যা নাই। আমরা কিছুই বুঝতে পারছি না।

নিহতের পারিবারিক সূত্রমতে, বৃষ্টি’র স্বামী গোলাম রাব্বি একজন হোসিয়ারি শ্রমিক। বৃষ্টি, তার স্বামী ও শ্বশুর-শ্বাশুড়ির সাথে খিলমার্কেট এলাকার হারুন মিয়ার বাড়ির চতুর্থ তলায় ভাড়া থাকতেন। বৃহস্পতিবার সকালে রাব্বি ও তার বাবা আসাদ মিয়া কাজে চলে যান। দুপুরে বৃষ্টির শাশুড়ি লাভলী বেগম ননদ আশামনির সন্তানকে আনতে তাদের বাড়ি যান। এরপর দুপুর ১টার পর তারা জানতে পারেন বৃষ্টি মারা গেছে।

এব্যাপারে ফতুল্লা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মো.আসলাম হোসেন লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, বৃষ্টি’র লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ঘটনায় অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে গলা ব্যতীত কোথাও দাগ কিংবা অন্য কোন চিহ্ন পরিলক্ষিত হয়নি।

0