ফতুল্লায় বিকাশ নাম্বার অনুসন্ধান করে চোর আটক

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লার লালপুর থেকে চুরি করার ১৫ ঘন্টার ব্যবধানে চুরিকৃত মালামালের আংশিক উদ্ধার করেছে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ। এ সময় এক যুবককে আটক করা হয়। শনিবার (২১ জানুয়ারি) রাতে তাকে গোগনগর থেকে আটক করা হয়।

আটককৃত যুবকের নাম রাসেল (৩২)। সে সদর উপজেলার গোগনগরের কবির হোসেনের ভাড়াটিয়া মৃত আব্দুল মালেকর ছেলে।

এর আগে শনিবার দুপুরে লালপুর পৌষাপুকুর এলাকার আলমাছের ভাড়াটিয়া মো. জাহিদ বাদী হয়ে একটি মোবাইল ফোন, নগদ ৫০ হাজার টাকা, দুটি স্বর্ণের আংটি, জায়গা-জমির বেশ কয়েকটি দলিল, জামা, কাপড়, শাড়ীসহ প্রায় দেড় লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরির অভিযোগ এনে ফতুল্লা মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগের বাদী জাহিদ অভিযোগ করে জানান, তাদের পরিবারের সকলে গ্রামের বাড়ীতে গিয়েছে। সে বাসায় একাই ছিলো। শনিবার সকাল সাড়ে ৭টায় সে ঘরের দরজা খোলা রেখে গোসল করতে যায়। ৮টায় নিজ ঘরে এসে দেখতে পায় বিছানার উপর থাকা মোবাইল ফোন, বিছানার নিচে থাকা ৫০ হাজার টাকা এবং আলমারীতে থাকা আট আনা ওজনের দুটি স্বর্নের আংটি, জামা কাপড়সহ মূল্যবান দলিল নিয়ে গিয়েছে চোর। পরে সে অপর একটি মোবাইল ফোন থেকে তার চুরি করে নিয়ে যাওয়া মোবাইল ফোনে কল করলে অপর প্রান্ত থেকে তাকে জানানো হয় এক লাখ টাকা দিলে দলিল ফেরত দিয়ে দিবে। তখন তিনি থানায় এসে অভিযোগ করে।

তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মফিজুল ইসলাম জানায়, তদন্ত নেমে এবং বাদীর নিকট থেকে টাকা চাওয়ার বিষয়টি জানতে পেরে বাদীকে বিকাশ নাম্বার চাওয়ার পরামর্শ দেন। বাদী তার পরামর্শ মতে টাকা প্রদানের জন্য বিকাশ নাম্বার চায়। সেই নাম্বারের সুত্র ধরে রাত এগারোটা দিকে চোর রাসেলকে আটক করা হয়। এসময় মোবাইল ফোন, দলিলসহ জামা কাপড় উদ্ধার করা হয়। চুরি যাওয়া টাকা ও আংটি উদ্ধারের চেস্টা করছে পুলিশ।