ফতুল্লায় মধ্যরাতে আগুন, নিয়ন্ত্রণ আনতে ফায়ার সার্ভিসের ২ কর্মী আহত

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লায় মধ্যরাতে হঠাৎ করে একটি দোকানে আগুন লাগে। পরে ঘটনাস্থলে এসে আধা ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের দুটি ইউনিট। তবে, সে সময় দোকানের ভেতর কেউ আছে কি না তা দেখতে উঁকি দিতেই গ্যাসের রাইজার বিস্ফোরণে আহত হয় শামসুল ইসলাম ও মাইনুল নামের ফায়ার সার্ভিসের দুজন কর্মী।

বুধবার (১ এপ্রিল) রাত ১ টার একটার দিকে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার সস্তাপুর গাবতলা এলাকায় কাদির মিয়ার ভাড়া দেয়া ফরহাদ মুন্সীর মুদি দোকানের আগুন লাগে ও আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে গেলে ওই ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মধ্যরাতে হঠাৎ করেই আগুন লেগে যায় ফরহাদ মুন্সির মুদির দোকানে। এতে এলাকাজুড়ে আতঙ্ক দেখা দেয়। এলাকাবাসী দ্রুত এসে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়। পরে ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আর্ধ ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে, দোকানের ভেতর কী আছে কিংবা কেউ হতাহত হয়েছেন কিনা তা দেখার জন্য ফায়ার সার্ভিসের দুজন কর্মী উঁকি দিতেই গ্যাসের রাইজার বিস্ফোরণের ঘটনায় তারা দুজন দুদিক ছিটকে পড়ে। পরে তাদের উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল নিয়ে যাওয়া হয়। আর আগুনো পুরো দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

এদিকে বিস্ফোরণের ঘটনায় গাবতলা এলাকাজুড়ে তীব্র আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। এসময় এলাকাবাসী ছুটোছুটি শুরু করে। এক পর্যায়ে এলাকাবাসী ওই দোকানির প্রতি তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে উত্তেজিত হয়ে উঠলে সদর উপজেলা ইউএনও নাহিদা বারিক ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে উত্তেজিত মানুষকে শান্ত করেন।

এবিষয়ে মন্ডলপাড়া ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারি পরিচালক আব্দুল্লাহ আল আরেফিন বলেন, ফতুল্লা গাবতলী এলাকায় কাদির মিয়ার ভাড়া দেয়া ফরহাদ মুন্সীর মুদি দোকানের আগুন লাগলে তা কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এনে ভিতরে কেই আহত আছে কি না তা দেখতে গিয়ে গ্যাসের রাইজার বিস্ফোরণে শামসুল ইসলাম ও মাইনুল নামের ফায়ার সার্ভিসের দুজন কর্মী আহত হয়েছে। খুব বেশি একটা আহত হয়নি। কাজ করতে গেলে এমন আহত হতেই পারে। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাদেরকে নিয়ে আসা হয়েছে।

0