ফতুল্লায় মানসিক রোগে আক্রান্ত গৃহবধূর আত্নহত্যা

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়নগঞ্জের ফতুল্লার বক্তাবলীতে গলায় ফাসঁ দিয়ে এক গৃহবধূ আত্নহত্যা করছে বলে জানা যায়। মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) রাতে সে নিজ ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ওড়না জড়িয়ে ফাসঁ দিয়ে আত্মহত্যা করে।

পরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে মধ্যরাতে সে চিকিৎসারতবস্থায় মারা যায়।

নিহত গৃহবধূ শিল্পি বেগম (৪২) ফতুল্লা মডেল থানার মোঃ আয়নাল হকের স্ত্রী। এ ঘটনায় নিহত গৃহবধূর বড় বোন মোসাম্মৎ মাহমুদা বেগম বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেন।

নিহতের পরিবারের বরাত দিয়ে ফতুল্লা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রকিবুজ্জামান জানান, ২০ বছর পূর্বে ফতুল্লা মডেল থানার পূর্ব গোপাল নগরের আব্দুল বারেকের পুত্র আয়নাল হকের সাথে নিহত গৃহবধূ শিল্পি বেগমের বিয়ে হয়।তাদের দাম্পত্য জীবনে দুটি ছেলে এবং দুটি মেয়ে রয়েছে। বিয়ের পর থেকেই শিল্পি বেগম মানসিক রোগে আক্রান্ত হয়ে ভুগছিলেন। প্রায় সময় সে অসংলগ্ন কথাবার্তার পাশাপাশি আত্নহত্যা করার কথা বলতো পরিবারের সদস্যদের নিকট। মানসীক রোগ থেকে মুক্তি পেতে চিকিৎসা ও করানো হয়েছিলে।

পরে মঙ্গলবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে নিহত গৃহবধু শিল্পি বেগম পরিবারের সকলের অগোচরে নিজ ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে গোয় ওড়না পেচিয়ে আত্নহত্যা করার চেস্টা করে। পরিবারের সদস্যরা টের পেয়ে তাকে উদ্ধার করে শহরের জেনারেল (ভিক্টোরিয়া) হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়। সেখান থেকে স্থানীয় একটি ক্লিনেকে নিয়ে যায়।সেখানে চিকিৎসাধীনবস্থায় রাত একটার দিকে সে মারা যায়।

ওসি আরো জানান, নিহতের পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিনা ময়নাতদন্তে নিহতের লাশ পরিবারের সদস্যদের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

0