বকেয়া বেতনের দাবীতে মালিক ও শ্রমিকপক্ষের মারামারি, আহত ১৫

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ ফতুল্লার ক্যাডটেক্স গার্মেন্টেস ডাইং শাখার শ্রমিক ও মালিক পক্ষের বিরুদ্ধে মারধর ও হামলার পাল্টাপাল্টি হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। হামলায় উভয় পক্ষের ১৫ জন আহত হয়।

শুক্রবার (৮ মে) রাত সাড়ে ১২টায় ফতুল্লার ক্যাডটেক্স গার্মেন্টেসের সামনে এই ঘটনা ঘটে।

এসময় শ্রমিকরা অভিযোগ করে জানান, ক্যাডটেক্স গার্মেন্টেস ডাইং শাখার দুইশতাধিক শ্রমিকের গত ৪ মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে। আজ দেই, কাল দেই বলে মালিকপক্ষ তালবাহানা করে আসছিল। রাত ১১টায় প্রতিষ্ঠানটির এইচআর ম্যানেজার সিরাজুল ইসলাম ও আরো ৪ জন কারখানার জিনিসপত্র সরিয়ে নেয়ার জন্য কারখানায় প্রবেশ করে। এ সময় প্রায় অর্ধশত শ্রমিক তাদের সঙ্গে কথা বলতে যায়। কথার এক পর্যায়ে শ্রমিকরা প্রতিষ্ঠানের বাইরে অবস্থান নেয়। এদিকে রাত সাড়ে ১২টার সময় ফতুল্লা থানা থেকে কিছু পুলিশ সদস্য ঘটনাস্থলে আসে। পরে রাত ২টায় শিল্পপুলিশসহ সাদা পোশাকের কিছু লোক আসে। এরপর লাইট বন্ধ করে শ্রমিকদের উপর হামলা করে এবং এলোপাথারি মারধর করে।

এদিকে মালিকপক্ষ জানায়, শুক্রবার রাতে কারখানার তৈরি পণ্য আনার জন্য ম্যানেজার সিরাজুল ইসলাম ও ৪ জন প্রতিষ্ঠানে প্রবেশ করে। এ সময় শ্রমিকরা তাদের অবরুদ্ধ করে এবং দফায় দফায় মারধর করে। পরে রাত ২টায় পুলিশ শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করে তাদের উদ্ধর করে নিয়ে আসে।

এইচআর ম্যানেজার সিরাজুল ইসলাম বলেন, বকেয়া বেতনকে কেন্দ্র করে তারা পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী আমাদের অবরুদ্ধ করে এবং মারধর করে। তারা রাত ১১টা থেকে ২টা পর্যন্ত দফায় দফায় আমাদের মারধর করে। এতে আমি গুরুতর আহত হই। করোনা পরিস্থিতির কারণে নিজ বাসায় আছি।

এ বিষয়ে শিল্প পুলিশ ইউিনিট-৪ এর পুলিশ সুপার সৈকত শাহীন বলেন, খবর পাওয়ার পর আমাদের সদস্যরা ঘটনাস্থলে যায় এবং প্রতিষ্ঠানের এইচআর ম্যানেজারসহ ৫ জনকে আহত অবস্থায় উদ্ধতার করে নিয়ে আসে। এখনো পর্যন্ত কোনো পক্ষ মামলা বা অভিযোগ করেনি। আমরা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেবো।

 

এলএন/ওও/এমএ/০৫১০-০১

0