বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে বাংলাদেশ সিঙ্গাপুরকেও ছাড়িয়ে যেতো: শাহ্ নিজাম

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: শিশুদের চিত্রাঙ্কন, রচনা প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে যাত্রা শুরু করলো রোকসানা হক মানব কল্যাণ স্মৃতি সংসদ।

সোমবার (২৭ জানুয়ারি) সকালে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৬নং ওয়ার্ডস্থ শিশুদের চিত্রাঙ্কন, রচনা প্রতিযোগিতার ফলাফল ঘোষণা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

রোকসানা হক মানব কল্যাণ স্মৃতি সংসদের মহাসচিব ও দেলপাড়া আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মো. সানোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মো. শাহ নিজাম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শাহ নিজাম বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার মাধ্যমে এদেশকে একশ বছর পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে দেশ আজ অনেক দুর এগিয়ে যেতো। বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে দেশ আজ মালয়েশিয়া ও সিংগাপুরকেও ছাড়িয়ে যেতো।

তিনি আরো বলেন, সমাজে ভাল মানুষের কদর বৃদ্ধি করতে হবে। ভালকে ভাল আর মন্দকে মন্দ বলতে না পারলে এ সমাজ কখনোই সুন্দর হবে না। সন্ত্রাস, চাদাবাজ, মাদক ব্যবসায়ী ও ভূমিদস্যুদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে। বাল্যবিয়ে ও ইভটিজিং এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। তিনি অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, সন্তানের সুরক্ষায় মায়েদের ভুমিকা অপরিসীম। মায়েরা সচেতন হলে সন্তান কখনোই বিপদগামী হবেনা।

অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মনিরুল আলম সেন্টু। উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৪,৫ ও ৬ নং ওয়ার্ড এর মহিলা মেম্বার ও রোকসানা হক মানব কল্যাণ স্মৃতি সংসদ এর চেয়ারম্যান অনামিকা হক প্রিয়াঙ্কা।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের সদস্য মো. মোস্তফা হোসেন চৌধুরী,কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৬ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য হাজী মো. রোকন উদ্দিন রোকন, ২ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, ৭,৮ ও ৯ নং ওয়ার্ড এর মহিলা মেম্বার আরজুদা বেগম খুকি, ইউপি সচিব মো. আবু হানিফা, কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী মো. জসিম উদ্দিন, আফির উদ্দিন স্মৃতি বৃত্তি পরিষদের সভাপতি মো. সেলিম মিয়া সরদার, পশ্চিম দেলপাড়া খালপাড় জামে মসজিদ কমিটির সভাপতি ও মোতাওয়াল্লী হাজী মো. শহিদুল্লাহ, শিল্পপতি এডভোকেট মো. বুলবুল আহম্মেদ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের আওতাধীন ৩০ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় ২ শতাধিক শিক্ষার্থী রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে এর মধ্যে ৩৫ জন প্রতিযোগীকে সনদপত্র ও ক্রেস্ট প্রদান করার পাশাপাশি সকল বিভাগে অংশগ্রহণকারী প্রতিযোগীদের মাঝে স্বান্তনা পুরস্কার হিসেবে সনদপত্র প্রদান করা হয়। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন রোকসানা হক মানব কল্যাণ স্মৃতি সংসদ এর ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান শাওন, যুগ্ন সচিব কাকলি আক্তার, দেলপাড়া আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের সেক্রেটারি ফছিহুল আলম, কোষাধ্যক্ষ মো. আমিনুর ইসলাম প্রধান, প্রধান শিক্ষক আফরোজা আক্তার, ডিজিটাল সাইন বাজারের ম্যানেজিং ডিরেক্টর শেখ মো. শফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

0