বন্দরে ব্রীজ-টানেল হবে, নৌকা যাবে মিউজিয়ামে: তৈমূর

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ‘এক দশক নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন, এর আগে পৌরসভা, টানা ১৮ বছর এ নগরীর দায়িত্বে থেকে তারা একটা ব্রীজ করতে পারেনি। অথচ চট্টগ্রামে টানেল হয়েছে। তারা টানেলও করতে পারেনি ব্রীজও করতে পারেনি। আমাকে আল্লাহ কবুল করলে, জনগনের আশার প্রতিফলন ঘটবে। এখানে ব্রীজও হবে টানেলও হবে’।

শনিবার (১ জানুয়ারি) সকাল থেকে দুপুরে পর্যন্ত বিরামহীন প্রচারণা চালিয়েছেন, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা এ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার।

বন্দরের ২১ ও ২২ নং ওয়ার্ডেও বিভিন্ন এলাকায় নির্বাচনী প্রচার প্রচারনায় নেমে উপরোক্ত কথা বলেন তৈমুর।

এসময় তিনি আরও বলেন, কেন্দ্র দখল, এজেন্ট বের করে দেয়ার দিন শীতলক্ষ্যায় ডুবে গেছে। আর নৌকার প্রয়োজন হবে না। কারন এখানে ব্রীজ, হবে টানেল হবে। নৌকা যাবে মিউজিয়ামে। জনগনের প্রতীক জয়ী হবে।

তিনি বলেন, এই বন্দরের কদমরসূল, মদনগঞ্জ বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ এলাকা হিসেবে পরিচিত ছিল। এই বন্দর এলাকায় রয়েছে পৃথিবীর অন্যতম নিদর্শন কদমরসূল দরগাহ সহ অনেক মাজার। রাজনৈতিক দিক দিয়েও এই এলাকা গুরুত্বপূর্ণ। নারায়ণগঞ্জ পৌরসভা হওয়ার পূর্বে মদনগঞ্জ পৌরসভা গঠিত হয়েছিল। জিয়াউর রহমান এই কদম রসূল পৌরসভা, সিদ্ধিরগঞ্জ পৌরসভা গঠন করেন। আমরাই উদ্দ্যোগ নিয়েছিলাম- নারায়ণগঞ্জকে সিটি করপোরেশন করার জন্য। সেই সিটি করপোরেশন গঠন হয়েছে। কিন্তু এর কাক্সিক্ষত ফলাফল জনগণ পায়নি।

তৈমূও আলম আরও বলেন, আমরা সিটি করপোরেশনকে জনমুখী করব। নির্বাচনে জয়ী হলে দুই শহরকে এক করে দেব। চট্টগ্রামের মত জায়গায় যদি টানেল হতে পাওে, নারায়ণগঞ্জেও বন্দর ও নারায়ণগঞ্জ টানেলের মাধ্যমে একত্রিত হয়ে যাবে। একাধিক ব্রীজের মাধ্যমে বন্দর ও নারায়ণগঞ্জকে একত্রিত করা হবে।