বন্দরে ৭ বছরের শিশু ধর্ষণ, আদালতে দায় স্বীকার

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বন্দরে শিশু(৭)কে ধর্ষণের অভিযোগে এক ব্যাক্তিকে আটক করেছে বন্দর থানা পুলিশ। সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) রাতে বন্দর থানার চৌরাপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়। এ আগে বন্দর থানায় ভুক্তভোগী শিশুর মা বাদী হয়ে বন্দর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং- ৩২(৯)২২।

আটককৃত ব্যাক্তির নাম নূর আলী (৩৮)। সে বন্দর থানার চৌরাপাড়া এলাকার কবির মোল্লার বাড়ি ভাড়াটিয়া ও উক্ত এলাকার আব্দুর রহিম মিয়ার ছেলে।

অভিযুক্তকে মঙ্গলবার সকালে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করেন মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা বন্দর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মফিজুল ইসলাম। তিনি জানান, নূর আলী বিজ্ঞ আদালতে ধর্ষনের দায় স্বিকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করে।

মামলার সূত্রে জানা যায়, গত (১৭ সেপ্টেম্বর) শনিরবার সকালে ভূক্তভোগী শিশুর মা তার দুই মেয়েকে তাদের ভাড়াকৃত বাসায় রেখে জীবিকার তাগিদে গৃহকর্মী কাজ করতে বাসা থেকে বের হয়। ওই দিন দুপুর ১২টায় বাড়িতে কেউ না থাকার সুবাদে একই বাড়ি অপর ভাড়াটিয়া নূর আলী পানি খাওয়ার নাম করে গৃহকর্মী ঘরে প্রবেশ করে। পরে ঘর ফাঁকা পেয়ে ৭ বছরের অবুঝ শিশুকে ধর্ষন করে পালিয়ে যায়। ওই সময় ধর্ষিতা শিশুটি ডাক চিৎকার শুনে আশে পাশের লোকজন দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে ধর্ষিতা শিশুটিকে উদ্ধার করে। পরে স্থানীয়রা চিৎকারের কারন জানতে চাইলে শিশুটি জানায় তাকে ধর্ষন করে পালিয়েছে নূর আলী।