বন্দর আদর্শ কিন্ডারগার্টেনে বর্ণীল পিঠা উৎসব

0

স্টাফ করেসপন্ডেট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ : বন্দর আদর্শ কিন্ডারগার্টেনের সভাপতি অ্যাডভোকেট শাহ আলী পিন্টু খানের উদ্যোগে বিদ্যালয় মিলনায়তনে দিনব্যাপী পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে।


পিঠা উৎসবে প্রধান অতিথি ছিলেন বন্দর প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ সভাপতি কবির হোসেন।

পিঠা উৎসবের উদ্ভোধন করেন স্কুলের অধ্যক্ষ রোকসানা বেগম মুক্তা।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় পঞ্চায়েতের সাধারণ সম্পাদক মোবারক হোসেন মিল্টন, হাজী আবুল হোসেন, হাজী লুৎফর রহমান বাবুল , হাজী ইসমাইল হোসেন।

প্রধান অতিথি সাংবাদিক কবির হোসেন বলেন, দেশে ঐতিহ্য আমাদের পিঠাপুলি আজ হারিয়ে যাচ্ছে। আজকাল মায়েরা আর কষ্ট করে পিঠা তৈরি করতে চায় না। শিশুরা পিঠাপুলির চাইতে চিপস, বিস্কুটে বেশি মজে থাকে। ছোটবেলা আমরা অনেক পিঠা খেয়েছি। আজও মনে পরে মা শীতের সকালে পিঠার আয়োজন করতো। আমরা ভাই বোনরা মিলে একসাথে পিঠা খেতাম। বন্দর আদর্শ কিন্ডারগার্টেন পরিচালনা কমিটি প্রতিবছর বেশ কিছু ভাল অনুষ্ঠান করে আসছে । তার মধ্যে পিঠা উৎসব অন্যতম। বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, প্রহেলা বৈশাখ, বসন্ত বরণ, বইমেলা, মায়েদের পা ধোয়া কর্মসূচি পালন সহ জাতীয় দিবসগুলো যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করে আসছে। আমি তাদের আয়োজনে সব সময় পাশে থাকব।

আয়োজক বিদ্যালয়ের সভাপতি অ্যাডভোকেট শাহ আলী পিন্টু খান বলেন, শিক্ষকবৃন্দ ও অভিভাবকদের ব্যবস্থাপনায় পিঠা উৎসবে ৩১ রকমের পিঠার সমারোহ ঘটে। শিশু শিক্ষার্থীদের সাথে দেশের ঐতিয্যবাহী  পিঠাপুলির পরিচয় করানো হয়। পাশাপাশি সকল শিক্ষার্থীদের নিয়ে  একসাথে পিঠার স্বাদ গ্রহনের ব্যতিক্রমি উদ্যোগ সবাইকে আনন্দ দেন। আমরা ২০১৪ সাল থেকে নিয়মিত এই আয়োজন করে আসছি। বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও শিক্ষকরা আন্তরিক সহযোগিতা করে আসায় আমরা দিনব্যাপী পিঠা উৎসবস পালন করে আসছি।

উপস্থিত শিক্ষার্থীদের পিঠার সাথে পরিচয় করানোর পর এদের মধ্যে যারা বেশি  পিঠার নাম বলতে পারবে তাদের পুরস্কার দেওয়া হয়। যে অভিভাবকরা পিঠা তৈরি করে নিয়ে আসেন তাদের মধ্যে লটারীর মাধ্যমে  বিজয়ীদের পুরস্কার দেয়া হয়।

0