বাবলু হত্যা মামলায় আলমসহ জড়িতদের খুঁজছে পুলিশ

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: হাজীগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী মাহবুবুল হক ওরফে বাবলু খুনের ঘটনায় আলমসহ বাকি জড়িতদের খুঁজছে পুলিশ। এরই মধ্যে আসামী রাকিব নামের এক আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

রোববার (১০ অক্টোবর) দুপুরে আসামী রাকিবকে ৩ দিনের জন্য জিজ্ঞাসাবাদের অনুমোতিদেন আদালত। এর আগে, গ্রেপ্তার করার পর থেকে আসামী বিভিন্ন সময় ধরণের বক্তব্য দিয়েছেন পুলিশকে।

মামলার বাদি ও প্রতক্ষদর্শীরা জানান, রাকিব নিজেই যে এ খুনের সাথে অংশ নিয়েছিলেন এ বিষয়টি পরিস্কার। রাকিবের সাথে আলমসহ আর কারা ছিল তাও জেনেছে পুলিশ। তবে কে, কোন উদ্দে্যে হাসিলের জন্য এ খুনে অংশ নিয়েছে তা স্পষ্ট নয়।

এদিকে, গ্রেপ্তারকৃত রাকিব যে তথ্য দিয়েছে, তাঁর দেওয়া তথ্য আরও ভালোভাবে যাচাই করছে পুলিশ।

এজাহার নামীয় ২য় আসামী রাকিব

গত সোমবার রাতে তল্লা সুপারী বাগ এলাকা হাজীগঞ্জ বাজারের জেনারেটর ব্যবসায়ী ও টেলিভিশন মেরামতকারী মাহবুবুল হক ওরফে বাবলুকে খুন করা হয়।

পরে এ ঘটনায় আলম, রাকিব, পলাশ ও খালেক বেপারীর নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ৪-৫ জনকে আসামী করে ৩২৩, ৩২৫, ৩০৭, ৩০২ ও ৩৪ ধারায় মামলা দায়ের করেন নিহতের ভাই। (মামলা নং-১১)

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, গত ৭ অক্টোবর রাত আড়াইটার সময় আসামীরা পূর্ব শত্রুতার জেরে মাহবুবুল হক বাবলু (৫১)কে এলোপাথাড়ী কিল ঘুষি মারলে গুরুতর আহত হয়ে সে মাটিতে লুটিয়ে পরে। সংবাদ তার ভাই লিটনসহ ভাতিজা ও ভাগিনারা বাবলুকে উদ্ধার করতে গেলে লিটনকেও মারধর করেন। পরে আহত অবস্থায় বাবলু ও লিটনকে খানপুর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক বাবলুকে মৃত ঘোষণা করেন।

ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিজানুর রহমান আদালতকে জানান, আসামীরা সন্ত্রাসী ও অভ্যাসগত অপরাধী। বাবলু হত্যার প্রকৃত রহস্য উদঘাটন, জড়িতদের সনাক্ত ও গ্রেপ্তারের লক্ষে তদন্তে অব্যাহত রয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ ও বাকি আসামীদের গ্রেপ্তারের জন্য রাকিবকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

ফাঁসির দাবিতে পরিবার ও স্থানিয়দের মানববন্ধন

খুনিদের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন

এদিকে মাহবুবুল হক বাবলু এর হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার ও ফাঁসির দাবীতে দুপুর ১২ টায় নারায়ণগঞ্জ আদালত প্রাঙ্গনে মানববন্ধন করেছে নিহতর পরিবারের সদস্য ও এলাকাবাসী। মানববন্ধন থেকে খুনিদের ফাঁসির দাবি করা হয়।

নিহতের ভাগিনা সাগর মানববন্ধন থেকে বলেন, হত্যাকারির প্রধান আসামি আলম ২ টি মদের বার চালায়। একটি হলো দাউদকান্দি আর অপরটি হলো চাদঁপুরে। সেই সাথে জুয়া এবং ক্যাসিনো ব্যবসাও আছে তাদের। এমনকি মাদেকর সাথে তারা জড়িত। আমরা মাহবুবুল হক বাবলুর হত্যাকারিদের গ্রেপ্তার ও দ্রুত ফাঁসির দাবি জানাই।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন নিহতের বড় ভাই মাজাহারূল হক, ছোট ভাই মাহমুদুল হক, ভাগিনা কাজী সাগর, খালাতো ভাই সোহেল খন্দকার, আব্দুল কাদির, আব্দুল মান্নান, মামাতো ভাই টিটু, বিটল্প, হাজীগঞ্জ বাজার কমিটির সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন, এলাকাবাসী পলাশ, মিন্টুসহ আরো অনেকে।

0