বার নির্বাচনে কঠিন প্যাঁচে ভোটাররা: যা ভাব‌ছেন তরুণ আইনজীবীরা. . .

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: অন্যান্য সময় নির্বাচন হয়েছে সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ ও জাতীয়তাবাদী আইনজীবী পরিষদে। প্রথমবারের মতো নতুন করে এ তালিকায় যুক্ত হয়েছে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের নাম। তাই ভোটারা পরেছে কঠিন প্যাঁচে। নির্বাচন যত ঘনিয়ে আসছে, ততই বাড়ছে উত্তেজনা, হচ্ছে নানা সমীকরণ। তবে, সব সমীকরণই পাল্টে দিতে পারে তরুণ ভোটারদের ভাবনায়।

এবারের বার নির্বাচনটি নিয়ে কি ভাবছেন তরুণ ভোটারা। সে কথাই তুলে ধরেছে লাইভ নারায়ণগঞ্জ।

জেলা যুবদলের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. মো. রোকন উদ্দিন বলেন, দিপু-পলু আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্যানেল। এ থেকেই বুঝা যাচ্ছে তাদের নিজেদের উপর আস্থা নেই। নিজেরাই বিদ্রোহী ঘোষণা করেছে। বিএনপি ইনশা আল্লাহ ১৭ টির মধ্যে ১৪-১৫টি প্যানেলে জয় লাভ করবে বলে আশা ক‌রি।

মহানগর যুবদলের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. মো. শরীফুল ইসলাম শিপলু বলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতি তরুণ নির্ভর। গত বছর ১৮-১৯ নির্বাচনে ৭ জন এবং ১৯-২০ এ ১১ জন তরুণ ছিল। তরুণরা এখন অন্যদের উপর নির্ভশীল নয়, ভালো পড়াশুনা করে। তরুণরা সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারে এবারের নির্বাচনে।

এদিকে, অ্যাড. মো. নাজিবুল্লাহ বিপু বলেন, দীর্ঘ অনেক বছর এ রকম নির্বাচন হয় নাই। খুব শক্ত সমর্থক না হলে, সাধারণ ভোটাররা দ্বিধা-দ্বন্দ্বে পরবে। তারা শঙ্কায় থাকবে কাকে ভোট দিবে।

অ্যাড. রবিউল আমিন রনি বলেন, এই নির্বাচন গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার নির্বাচন। যারা বারের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে চায়, তারা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে।

সাবেক লাইব্রেরী সম্পাদক অ্যাড. আশ্রাফুল আলম সিরাজি রাসেল বলেছেন, নির্বাচন কমিশনার নিরপেক্ষ ভূমিকা পালন করলে ইনশাআল্লাহ বিএনপি অবশ্যই জয়লাভ করবে। বর্তমান নির্বাচন কমিশনারের উপর আস্থা না থাকার পরও অংশগ্রহণ করছি, আন্দোলনের অংশ হিসেবে। আশাকরি নির্বাচন কমিশনার সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভূমিকা রাখলে বিএনপি জয়লাভ করবে।

0