বিজ্ঞানী মাকসুদুল আলম স্মরণগ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠান    

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ : ১০ফেব্রুয়ারি সকাল এগারোটায় জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে সোনালি আঁশের সোনালি মানুষ পাটের জীবন রহস্যের উদ্ভাবক বিজ্ঞানী মাকসুদুল আলম-এর জীবন ও কর্ম নিয়ে কবি শাহেদ কায়েস সম্পাদিত “বিজ্ঞানী মাকসুদুল আলম স্মরণগ্রন্থ’’”র প্রকাশনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।



বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাবেক সদস্য অধ্যাপক ড. এম ইউসুফ আলী মোল্লা’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী এমপি।

স্মরণগ্রন্থটি প্রকাশ করেছে প্রকাশনা সংস্থা ‘ঐতিহ্য’।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, অতিথি মেজর জেনারেল মঞ্জুরুল আলম (অবসরপ্রাপ্ত), জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ স¤পাদক ফরিদা ইয়াসমিন, রাফিয়া হাসিনা আলম, বইটির স¤পাদক কবি শাহেদ কায়েস, অধ্যাপক দিলীপ কুমার নাথ এবং ঐতিহ্যের হেড অব অপারেশন কাজী আদনান কবির।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক জোবাইদা নাসরীন কণা।

কণ্ঠশিল্পী আফজাল হোসেন-এর কণ্ঠে রবীন্দ্রনাথের “তুমি কেমন করে গান কর হে গুণী!” গানের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানটি শুরু হয়।

প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন—  বিজ্ঞানী মাকসুদুল আলম বাংলাদেশের জন্য অনেক বড় অবদান রেখে গেছেন। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে যে স্বাধীন বাংলাদেশ গড়ে উঠেছে সেই সোনার দেশের সোনার ছেলে বিজ্ঞানী মাকসুদুল আলম, তিনি পাট ও ছত্রাকের  জীবন রহস্য উদ্ভাবনের মাধ্যমে বাংলাদেশের জন্য অনেক বড় গৌরব বয়ে এনেছেন। বাংলাদেশের মানুষ তাঁকে আজীবন শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করবেন। আমি জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানাই, তাঁর প্রত্যক্ষ হস্তক্ষেপে অনেক গোপনীয়তার মধ্য দিয়ে আমাদের এই বড় কাজটি সফলভাবে করা সম্ভব হয়েছিল। আজকে আমরা এই ক্ষেত্রে বিশ্বে পাইওনিয়ার। পাটকে কেন্দ্র করে দেশে কীভাবে আরও সম্ভাবনার দ্বার উন্মোচন করা যায় এখন আমাদের  বিজ্ঞানীদের, গবেষকদের তা নিয়ে কাজ করতে হবে এবং দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।

এরপর সভাপতির সমাপনী বক্তব্যের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

0