বির্তকিত আলাউদ্দিন মেম্বারের বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রীকে মারধরের অভিযোগ

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: এবার ফতুল্লার সেই আলাউদ্দিন হাওলাদারের বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রীসহ ৩ জনকে নির্মম ভাবে মারধরের অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার (৪ আগস্ট) এ ঘটনায় ফতুল্লা মডেল থানায় ২টি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে ভুক্তভোগীর পরিবার।

অভিযুক্ত আলাউদ্দিন হাওলাদার কুতুবপুর ইউনিয়নের সদস্য ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি। এলাকাবাসীর অভিযোগ, বিভিন্ন সময় এই পরিচয় গুলোই রক্ষা কবব্জ হিসেবে কাজ করেছে।

থানা সূত্রে জানা যায়, সন্ত্রসী আলাউদ্দিন মেম্বারের বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় রয়েছে ৩০ টিরও বেশি অভিযোগ ও সাধারন ডাইরী হয়েছে। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে ৭টি মামলা রয়েছে।

ভুক্তভোগী মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী আমিরুন নেসা অভিযোগে উল্লেখ করেন, বাসায় সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে আলাউদ্দিন মেম্বার ও তার বাহিনী। এ সময় মেম্বারের ছেলে তপন ও বাহিনীর সদস্য মদুতি সেলিমের ছেলে মুন্না তাণ্ডভ চালিয়েছে। এ সময় সন্ত্রাসী হামলায় আমিরুন নেসা তার স্বামী আব্দুল মতিন ও ছেলে জিহাদ গুরুতর আহত হন। এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় আমিরুন নেসা ও জাকির হোসেন বাদি হয়ে ২ টি অভিযোগ দায়ের করেন ।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন জানান, অভিযোগ পেয়ে রাতেই ঘটনা স্থানে পুলিশ পাঠিয়েছি ,তদন্তপূর্বক দোষীদের বিরুদ্ধে আইন আনুক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

প্রসঙ্গত, ভূমিদস্যু, চাদাবাজিসহ একাধিক নারী কেলেঙ্গারীর অভিযুক্ত এই ইউপি সমস্য। ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বরের ছাগল চুরির অপবাদে দুই যুবককে নির্যাতণের পর ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পরে। ওই সময় ঘটনার আলোড়ন তোলার পর গ্রেপ্তার করা হয় আলাউদ্দিন মেম্বারকে।

0