বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়ির সামনে অনশন

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ : বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়ির সামনে অনশন শুরু করেছে বন্দর উপজেলার অনার্স পড়ুয়া এক ছাত্রী। তিনি রবিবার (১লা ডিসেম্বর) কুমিল্লার লাকসামের চাঁনগাঁও গ্রামে তার প্রেমিকের বাড়ির সামনে এই অনশন শুরু করেছেন। এ ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃস্টি হয়েছে।

বিয়ের দাবিতে অনশনরত ওই কলেজ ছাত্রী বন্দর কদমরসূল কলেজের অনার্সের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী শাহিনুর আক্তার। এবং তার প্রেমিক চাঁনগাঁও গ্রামের মানু মিয়ার ছেলে প্রবাসী মামুন ওরফে সুজন। তারা দুজনই সহপাঠী। এর সূত্র ধরেই উভয়ের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে।

জানা যায়, রবিবার (১লা ডিসেম্বর) ওই কলেজ ছাত্রী প্রেমিকের বাড়ির সামনে গিয়ে অবস্থান নেয়। তিনি বিয়ের দাবিতে অনশন শুরু করেন। এ খবর চাউড় হলে উৎসক জনতা ভিড় জমান। এ নিয়ে এলাকাজুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। এবং এ ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ভিডিও আকারে ভাইরাল হলে ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

এর আগেও ছেলের আমন্ত্রণে মেয়ের পরিবারের লোকজনসহ ছেলের বাড়িতে গিয়ে উঠে। সেই সময় ছেলের অভিভাবকরা বিয়ের আশ্বাস দিলে পরিবারের লোকজন বাড়ি ফিরে যায়। রবিবার সকাল থেকে মামুনের পরিবারের লোকজন বাড়িতে থেকে প্রেমিকাকে অস্বীকার করতে শুরু করে। বিকেলে গণমাধ্যমের লোকজনের উপস্থিতি টের পেয়ে ছেলের পরিবারে লোকজন পালিয়ে যায়।

ওই ছাত্রী বলেন,‘দুই বছর আগে থেকেই সহপাঠী মামুনের সঙ্গে আমার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পারিবারিক ভাবে আমার বিয়ের প্রস্তাব দেয়া হলেও মামুন কৌশলে তা এড়িয়ে যায়। প্রথম দিকে ও আমাকে বিয়ে করবে বলে আশ্বাস দিয়েছিল। গত কয়েক মাস আগে আমার সঙ্গে মামুন যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। আমি খোঁজ নিয়ে জানতে পারি, মামুন তাদের এলাকায় অবস্থান করছে। আমার দাবি, মামুনসহ তার পরিবারের লোকজন বিয়ের বিষয়টির সুরাহা দিতে হবে। তা না করা পর্যন্ত আমার অনশন চলবে এমনকি মামুনের সাথে বিয়ে না হলে আমি এখানে আত্মহত্যা করব‘।

কান্দিরপাড় ইউনিয়নের ওয়ার্ড সদস্য আবদুর রব বলেন,‘স্থানীয় লোকজনের মুখে শুনেছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ যাচ্ছে আমিও যাচ্ছি‘।

এ ব্যাপারে লাকসাম থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নিজাম উদ্দিন জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে মেয়েটিকে থানায় আনা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

0