বুকে পা রেখে শিশুর গলা কাটার সময় যুবক ধরা, অতঃপর…

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ৬ বছরের শিশুর বুকে পা রেখে ছুরি দিয়ে গলাকাটার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন ৩০ বছরের এক যুবক । ঠিক সেই সময় ভাগ্যক্রমে শিশুটির আপন চাচী দেখে ফেলেন এই দৃশ্য। তার চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে এসে হাতেনাতে ওই যুবককে আটকের পর গণধোলাই শেষে পুলিশে সোপর্দ করে।

রোমহর্ষক ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার রাত ১১ টায় নারায়ণগঞ্জ ফতুল্লার পশ্চিম ভূইগড় এলাকায় ।

ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের ওসি) আসলাম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ফতুল্লা পশ্চিম ভুইগড় এলাকার শাহীন মিয়ার ছেলে আলিফ (৬) রাত সাড়ে ১১টার দিকে বাড়ির পাশে নানা শহীদুল্লাহর বাড়িতে যাওয়ার সময় আমির হোসেন (৩০) নামে এক যুবক তাকে আটক করে। এ সময় শিশুটিকে জোর করে আমির হোসেন তার পরনের কোট দিয়ে পেঁচিয়ে ফেলেন। এরপর শিশুটিকে মাটিতে ফেলে বুকে পা রেখে ধারালো ছুরি দিয়ে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা করেন। তখন শিশুটির চাচী সেলিনা ওই পথ দিয়ে যাওয়ার সময় ঘটনা দেখে চিৎকার শুরু করেন। এতে আশেপাশের লোকজন ছুটে এসে আমিরের কাছ থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করে এবং আমিরকে ধরে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে খবর দেয়।
পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আমিরকে আটক করে এবং শিশু আলিফকে তার বাবা-মায়ের কাছে হস্তান্তর করে। আটক আমির তার পরিচয় নিয়ে বিভ্রান্ত করছেন। তার সঠিক পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে বলেও ওসি জানান।

শিশুটির বাবা শাহীন মিয়া কান্নাজাড়িত কণ্ঠে বলেন, আজকে আল্লাহ সহায় যে আমার সন্তানকে জীবিত পেয়েছি। আমি আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করছি এবং ওই ব্যক্তির কঠিন শাস্তি দাবি করছি।

0