ভাইয়ের অসমাপ্ত কাজের দায়িত্ব নিলেন ফজর আলী

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: সুখে দুঃখে মানুষের পাশে ছিলেন নওশেদ আলী। সাধারণ জনগণও তাকে মূল্যায়ন করতে ভুল করেনি। নির্বাচিত করেছিলেন গোগনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে। এরপর সরকারের সকল উন্নয়ন বাস্তবায়নেই ভূমিকা রেখে ছিলেন। চেয়ারম্যান পদে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে পেয়ে ছিলেন স্বর্ণ পদকও। কিন্তু মহামারি করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন তিনি।

সেই প্রয়াত চেয়ারম্যান নওশেদ আলীর অসমাপ্ত কাজ গুলো সমাপ্ত করার দায়িত্ব নেয়ার অনুরোধ উঠেছে তাঁরই ছোট ভাই বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক মো. ফজর আলীর প্রতি। গোগনগর ইউনিয়নের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সমর্থনে ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ মোহাম্মদ বাদলের অনুরোধে ওই দায়িত্ব মাথা পেতে নিতে রাজি হয়েছেন ফজর আলী। সে সময় উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান নুর হোসেন সওদাগর, বিভিন্ন ওয়ার্ডের মেম্বারসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) গোগনগরের ২২জন বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি আবু হাসনাত শহীদ মোহাম্মদ বাদল বলেন, ‘নওশেদ চেয়ারম্যান খুব ভালো মানুষ ছিলেন। আমি অনুরোধ করবো, এখানে যে নেওশেদ চেয়ারম্যানের ছোট ভাই ফজর আলী আসছেন, আপনিও আপনার ভাইয়ের মতো মানুষের খেদমতে এগিয়ে আসবেন। আপনার সাথে এই মুক্তিযোদ্ধারা থাকবেন। আপনি আজকে সবাইকে স্বাক্ষী রেখে বলেন, মুক্তিযোদ্ধা ভাইয়েরা যে কাজ করতে বলবে, সেই কাজ গুলো করবেন। যে দায়িত্ব দিবে, সেই দায়িত্ব আপনি (ফজর আলী) অক্ষরে অক্ষরে পালন করবেন।’

এ সময় সকলের উপস্থিততে ফজর আলী বলেন, ‘আমি আমার ভাইয়ের অসমাপ্ত কাজের দায়িত্ব নিলাম। আপনারা যে ভাবে, যে কাজ গুলো করতে বলবেন, আমি সেই কাজ গুলো করবো। আপনারা শুধু দোয়া করবেন।’

আবু সাইদ শিপলু সঞ্চালনায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ সদর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. নাজির উদ্দিন আহম্মেদ, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ উল্লাহ আল মামুন, বাংলাদেশ পাট আড়ৎদার সমিতির সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা এস.এম মোসলেহ উদ্দিন, সৈয়দপুর বঙ্গবন্ধু উচ্চ বিদ্যালয়ের দাতা সদস্য ও সমাজ প্রধান মো. নাজির হোসেন ফকির, প্রয়াত চেয়ারম্যান নওশেদ আলীর বড় ছেলে মো. কাশেম, নুর হোসেন সওদাগর মেম্বার, মোক্তার মেম্বার, জুলহাস মেম্বার, সৈকত মেম্বার, পুরান সৈয়দপুর সমাজ প্রধান রুছতম আলী সরদার, সৈয়দ হোসেন, গাজী কামাল প্রমুখ।

উল্লেখ্য, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক মো. ফজর আলী বিভিন্ন সময় এলাকায় অসহায় দরিদ্র মানুষের সেবায়, সহযোগিতার পাশাপাশি নানা উন্নয়ণমূলক কাজে শরিক থাকেন। বিশেষ করে, করোনাকালে, তার এলাকায়সহ নারায়গঞ্জে বিভিন্ন মানুষকে নগদ অর্থ, খাদ্য সামগ্রী দিয়ে নিরবে অসহায়দের সহযোগিতা করে ছিলেন।

0