ভাগ্নিকে নিয়ে পালিয়েছে খালু!

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ভাগ্নিকে নিয়ে পালানোর অভিযোগে খালুকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এঘটনায় কিশোরীর মা বাদি হয়ে একটি অপহরন মামলাও করেছেন।

শনিবার (২০ জুলাই) দুপুরে ঢাকার ডেমরা থানার সারুলিয়া থেকে অভিযুক্ত খালুকে আটক করে। পরে একই এলাকা থেকে ওই কিশোরী ভাগ্নিকেও উদ্ধার করা হয়।

মামলা সূত্রে জানা যায়, কিশোরী সালমা ও আটকৃত শিপন ওরফে সবুজের পরিবার নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন সুমিলপাড়ার জনৈক মাসুমের বাড়ীতে ভাড়া থাকে। শিপন প্রায়ই সালমাকে নানা ধরণের অশ্লীল কথাবার্তা বলতো। আত্মীয়তার সূত্রে এতে কেউই কিছু মনে করতো না। শিপনের স্ত্রী গার্মেন্টসে চাকুরী করার সুবাদে ভাগ্নি সালমাও চাকুরীর কথা বলে গত সোমবার (৮ জুলাই) সকাল ৮টায় বাসা থেকে বেরিয়ে যায়।

ঐ দিন বিকাল ৫টায় খালা (শিপনের স্ত্রী) ফিরে আসলেও সালমা ফিরে আসেনি। পরিবারের লোকজন সালমার কথা জিজ্ঞেস করলে খালা (শিপনের স্ত্রী) জানায়, সকালে গার্মেন্টসে যাওয়ার পথে গুরুত্বপূর্ণ কাগজ বাসায় রেখে এসেছে জানিয়ে বাসায় চলে আসে সালমা। একই দিন সকালে ঢাকায় চাকুরীর কথা বলে বাসা থেকে বেরিয়ে যায় খালু শিপনও। রাত হয়ে গেলেও দুজনের কেউই বাসায় ফিরে না আসায় শিপনের ব্যবহৃত মোবাইলে কল করে সালমার কথা জিজ্ঞেস করলে সে বিভিন্ন ধরণের কথা বলতে থাকে। পরে খোঁজাখুজির এক পর্যায়ে পরিবারের লোকজন জানতে পারে যে, ঐ দিন শিপন তার ভাগ্নে সালমাকে ফুঁসলিয়ে অপহরণ করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক মো. জয়নাল আবেদীন বলেন, কিশোরী সালমাকে সারুলিয়া থেকে উদ্ধার এবং অপহরণকারী খালু শিপন ওরফে সবুজকে আটক করা হয়েছে। সালমার মা শিপনের বিরুদ্ধে অপহরণের মামলা করেছেন।

0