ভূইগড়ে তরুণীর ঝুলন্ত লাশ

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ভূইগড়ে এক তরুনীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ। শনিবার (২৮ মে) সকালে ফতুল্লা ভুইগড় এলাকার খন্দকারের ভাড়াটিয়া বাসা থেকে ওই লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত তরুনীর নাম রিমি (২১)। সে কিশোরগঞ্জ সদর থানার রশিদাবাদ গ্রামের রফিক মিয়ার মেয়ে। ফতুল্লায় ভুইগড় খন্দকার বাড়ীর ভাড়ায় বসবাস করে এবং ভুইগড় এস,বি গার্মেন্টেসের শ্রমিক।

ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইমানুর জানায়, মেয়েটি তার বোন ও বোন জামাইয়ের সাথে এক সাথে থেকে এস,বি গার্মেন্টসে চাকুরী করতো। তার বোন সন্তান সম্ভাবা হওয়ায় স্বামীর সাথে গ্রামের বাড়ীতে চলে যায়। তাই সে গত এক সপ্তাহ পূর্বে বর্তমান ঠিকানার বাসায় ভাড়ায় আসে। এখানে সে একাই বসবাস করতো।

তিনি আরও জানান, শনিবার সকালে গার্মেন্টসে না যাওয়ায় গার্মেন্টসের এক সহকর্মী তাকে বাসায় ডাকতে আসে। দরজা ভিতর থেকে লাগানো ছিলো। দরজায় ডাকাডাকি করে কোন সারা শব্দ না পেয়ে বাড়ীর কেয়ার টেকারকে বিষয়টি অবগত করে তাকে নিয়ে এসে পুনরায় ডাকাডাকি করে। এক পর্যায়ে দরজা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে দেখতে পায় ঘরের লোহার তৈরি আড়ার সাথে গলায় কাপড়ের দড়ি দিয়ে ফাঁস লাগানো ঝুলন্ত দেহ।

এদিকে, সংবাদ পেয়ে বেলা ১১ টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়নগঞ্জ জেনারেল (ভিক্টোরিয়া) হাসপাতালে পাঠিয়েছে।