মসজিদে ঈদের জামায়াত পড়তে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের শর্ত

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণরোধে অন্যবারের চেয়ে এবারের ঈদ উদযাপন হবে ভিন্ন মাত্রায়। খোলামাঠ কিংবা ঈদগাহ বাদ দিয়ে সরকারি স্বাস্থ্যবিধি মেনে মসজিদেই ঈদের জামায়াত আদায় করতে হবে।

এখানেই শেষ নয়। মসজিদেও ঈদের জামায়াত আদায় করার প্রসঙ্গে রয়েছে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন দিক-নিদের্শনা।

বৃহস্পতিবার (১৪ মে) স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরের নামাজের জামাত আদায় প্রসঙ্গে বিভিন্ন নির্দেশনা জারি করে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

বিজ্ঞপ্তি অনুসারে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দেওয়া যে যে নির্দেশনাবলী মেনে মসজিদে ঈদের জামায়াত পড়তে হবে-

১. ঈদগাহ বা খোলা জায়গার পরিবর্তে ঈদের জামায়াত মসজিদে আদায় করতে হবে। প্রয়োজনে একই এলাকার একই মসজিদে একাধিক জামায়াত হতে পারে।

২. মসজিদে কার্পেট বিছানো যাবে না। জীবানুনাশক দিয়ে পরিস্কার করতে হবে। প্রত্যেক মুসল্লী জায়নামাজ নিয়ে যাবে।

৩. মসজিদে ওযুর স্থানে হাত ধোয়ার সাবান/হ্যান্ড ওয়াশ/ হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখতে হবে।

৪. মুসল্লীগণ নিজ নিজ বাসা থেকে ওযু করে আসবে।

৫. প্রত্যেক মুসল্লী মাস্ক পরে মসজিদে যাবেন। মসজিদে রক্ষিত জায়নামাজ ও টুপি ব্যবহার করা যাবে না।

৬. সামাজিক দূরত্ব, স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করে এক কাতার অন্তর অন্তর কাতার করতে হবে।

৭. শিশু, বয়োবৃদ্ধ,অসুস্থ, চিকিৎসাধীন এবং রোগীর সেবার নিয়োজিত বৃহত্তর স্বার্থে তাদের মসজিদে অংশগ্রহন করতে পারবে না।

৮। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে মসজিদে জামায়ত শেষে কোলাকুলি এবং পরস্পর হাত মেলানো যাবে না।

৯। নামাজ শেষে মহামারি করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য দোয়া করতে হবে।

১০। খতিব, ইমাম এবং মসজিদ পরিচালনা কমিটি বিষয়গুলো বাস্তবায়ন নিশ্চিত করবে।

0