মাদককে ‘না’ বললো ৫‘শ শিক্ষার্থী

0

সিদ্ধিরগঞ্জ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: সিদ্ধিরগঞ্জের দু’টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৫ শতাধিক শিক্ষার্থী নিয়ে মাদক বিরোধী সমাবেশ করেছেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) মীর শাহীন শাহ পারভেজ। ১৮ এপ্রিল (মঙ্গলবার) দুপুরে সিদ্ধিরগঞ্জের শেখ মোরতোজা আলী উচ্চ বিদ্যালয় ও সানারপাড় রওশন আরা কলেজের ৫ শতাধিক শিক্ষার্থী নিয়ে পৃথক ভাবে এ দু’টি সমাবেশ করা হয়। এসময় তিনি মাদকের নানা কু ফল সম্পর্কে বিস্তর বর্ণনা করেন এবং শিক্ষার্থীদের সাথে খোলা মেলা আলোচনা করেন। তিনি বলেন, মাদকের ভয়াবহতা উপলব্ধি করে সরকার মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা করেছে। মাদকের বিরুদ্ধে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যেই এ মাদক বিরোধী সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওসি। সমাবেশে শিক্ষার্থীরা হাত উচিয়ে মাদক কে ‘না’ বলেন।
প্রথমে সিদ্ধিরগঞ্জের শেখ মোরতোজা আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের হল রুমে স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ জহিরুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মাদক বিরোধী সমাবেশে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) মীর শাহীন শাহ পারভেজ বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার উন্নয়ণের পাশাপাশি মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ মুক্ত দেশ গঠন করার জন্য অঙ্গীকার ব্যক্ত করে কাজ করে যাচ্ছে। আপনারা অবগত আছেন এ কথাটি তিনি প্রতিদিনই বলছেন যা গনমাধ্যমে প্রচার ও প্রকাশ হচ্ছে। আমাদের সমাজ আজ ধ্বংসের পথে, মাদকের যেভাবে ছড়াছড়ি তার কারনে প্রতিনিয়ত অপরাধ কর্মকান্ড ঘটছে। বাংলাদেশের মানুষের জন্য যে পরিমান পুলিশ নিয়োজিত রয়েছে তা দিয়ে মাদক প্রতিরোধ করা সম্ভব নয়। তাই সমাজ থেকে মাদক নিমূল করতে হলে সকলের সর্বাত্মক প্রচেষ্টা প্রয়োজন। মাদকের বিস্তার নির্মূল করতে প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, আইজিপি, ডিআইজি, পুলিশ সুপার এবং থানার ওসি পর্যন্ত মাদকের ব্যাপারে জিরো ট্রলারেন্স নীতি অনুসরণ করছে। তাই মাদক থেকে আমাদের দেশের মেধা ও প্রতিভাকে বাাঁচাতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে, ছাত্র-ছাত্রী অভিভাবকসহ সবাইকে সচেতন হতে হবে।


এসময় অন্যান্ন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয়ের ব্যাবস্থাপনা কমিটির সদস্য মাহবুবুর রহমান লাল চাঁন, কায়সার আহমেদ রানা, সহকারী প্রধান শিক্ষক শামীম আহমেদ, সহকারী শিক্ষক দিলরুবা, স্বপ্নযাত্রা সামাজিক সংগঠনের সাধারন সম্পাদক রবিউল ইসলাম বাবু ও ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক জিসানসহ ছাত্র-ছাত্রী ও অভিভাবকবৃন্ধ প্রমূখ।
ওসি শাহীন পারভেজ বলেন, মাদকের কারনে নিজ সন্তানের হাতে আমাদেরই পুলিশ কর্মকর্তা স্ত্রীসহ খুন হয়েছেন। এমনই অপরাধ প্রতিদিনই ঘটছে। মাদক সেবন করলে কারো হিতাহিত জ্ঞান থাকেনা ফলে মাদকসেবী যেকোন অপরাধ করতে পারে এমনকি মাতা-পিতা, ভাই-বোন, স্ত্রী-সন্তানসহ আপনজনকে ক্ষতি করতে পারে। মাদকের কারনে আমাদের দেশের অনেক মেধাবী যুবক-যুবতী ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। এই ভয়ানক মাদক থেকে আগামী প্রজন্মকে রক্ষা করতে সরকার কঠোর অবস্থানে থেকে কাজ করছে আমরাও কাজ করছি। মাদক থেকে আমাদের সন্তানদেরকে বাচাঁতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। মাদক সেবন এবং বিক্রয়ের সাথে যারাই জড়িত থাকবে তাদেরকে আটক করে আমাকে খবর দিবেন আমি কঠোর ব্যবস্থা নিব।
ছাত্রদের উদ্দেশ্যে তিনি আরো বলেন, যে দেশে মাদক তৈরী হয় সেদেশের মানুষ মাদক সেবন করে না কিন্তু আমাদের দেশের মানুষ তা কিনে সেবন করছে। ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছি আমরা। তোমরা লেখাপাড়া করছো উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে আমার মত পুলিশ অফিসার হবে, ডাক্তার ও ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার জন্য কিন্তু যারা মাদক গ্রহণ করবে তারা সরকারী চাকরীতে ঢুকতে পারবে না। কারণ সরকার বর্তমানে চাকরীতে নিয়োগ দেওয়ার আগে সবার ডোপ টেষ্ট চালু করেছেন। তাই যারা মাদক গ্রহণ করবে, তারা কোনদিন সরকারী চাকরী করতে পারবে না। তাই সবাইকে মাদকের বিরুদ্ধে শপথ নিতে হবে। সকলের পরিবারের সদস্য এবং প্রতিবেশীদেরকেও সচেতন করতে হবে।
এরপরে তিনি সানারপাড় রওশন আরা ডিগ্রি কলেজের কলেজের অধ্যক্ষ মো: হারুন অর রশীদের সভাপতিত্বে ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে পৃথক একটি মাদক বিরোধী সমাবেশে ছাত্র-ছাত্রীদেরকে মাদক সম্পর্কে সচেতনতা মূলক বক্তব্য প্রদান করেন।

0