মামার সাথে গোসলে নেমে শীতলক্ষ্যায় প্রাণ গেল শিশুর

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: দূর সম্পর্কের মামার সাথে নদীতে গোসল করতে গিয়ে নগরী ৫ম শ্রেণির এক ছাত্র বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নিখোঁজ হয়। পরে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল বিকেলে তার লাশ উদ্ধার করে। নগরীর টানবাজার এলাকায় শীতলক্ষ্যা নদীতে এ ঘটনা ঘটে। এঘটনায় ওই মামাকে পুলিশ ৫৪ ধারায় আদালতে পাঠিয়েছে।

তোয়াশিন আরাফাত (১০) নামের ওই শিশুটি দেওভোগ পানির ট্যাংকি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির ছাত্র। সে দেওভোগ পশ্চিমপাড়া এলএন রোড (মুরাদ মিয়ার ভাড়াটিয়া) রিতা আক্তারের ছেলে।

প্রতক্ষ্যদর্শীরা জানায়, বুধবার বেলা ১১টার সময় ফয়েজ আহম্মেদ মৃধা (৩০) নামের এক দুসম্পর্কের মামার সাথে নদীতে গোসল করতে গেলে তোয়াশিন নিখোঁজ হয়। অনেক খোঁজাখুজি করার পর মামা ফয়েজ আহম্মেদ মৃধা দুপুর ২টার সময় তোয়াসিন এর মা রিতা আক্তারকে ঘটনাটি জানায়। পরে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সহায়তায় শীতলক্ষ্যা নদীতে শিশুটিকে উদ্ধারের জন্য নারায়ণগঞ্জের ফায়ার সার্ভিসের একটি টিমসহ ঢাকার একটি ডুবুরি দল কাজ করছেন।

তোয়াশিনের মা রিতা আক্তার জানান, তিনি সকালে কাজে যায় এবং দুপুরে ফয়েজ (কথিত মামা) তাকে ফোনে জানায় তার ছেলেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তারপর থেকে তিনি তার সন্তানকে বাড়ীর আশেপাশে খোজাখুঁজি করে। একপর্যায়ে পুলিশকে জানায়।

সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) গোলাম মোস্তফা জানান, ফয়েজ আহম্মেদ মৃধাকে ৫৪ ধারায় আদালতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া মৃত্যুর কারণ জানতে লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ ১০০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

0