মেয়রকে খোকন সাহা ‘সত্য প্রকাশ হলেই অপপ্রচার-সামনে নির্বাচন, না পারলে করেন মামলা’

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: উনি অন্যায় করছেন, কিন্তু কেউ প্রতিবাদ করলেই বলে, ‘উমুক পরিবারের ইন্ধন’ কিংবা ‘সামনে নির্বাচন দেখে অপপ্রচার’। আর তাতেও না পারলে  তিনি ও তার পরিবার করে দেন ‘আইসিটি আইনে মামলা’।
নারায়ণগঞ্জের চার জন বিশিষ্ট সাংবাদিকের বিরুদ্ধে নারায়ণণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াত আইভীর পরিবারের সদস্যের করা মামলার প্রসঙ্গে উপরোক্ত কথা বলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা।

এড. খোকন সাহার দাবী, ‘অন্যায় করলেও রাজনীতি আর আইনের মাধ্যমে মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করে ওই পরিবারটি।’

‘আমার বিরুদ্ধে যেভাবে আইসিটি আইনে মামলা করা হয়েছিল। একই ভাবে ২০১৮ সালে একটি দূর্ণীতির বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় নারায়ণগঞ্জের ৪ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা করেন। যেটা মেয়র আইভীর পরিবারের করাটা ঠিক হয়নি। উনি যদি ক্ষতিগ্রস্থ হনই, তাহলে প্রেস কাউন্সিলে গিয়ে অভিযোগ দিতে পারতেন’ বলছিলেন অ্যাড. খোকন সাহা।

সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলার ইস্যু নিয়ে খোকন সাহা বলেন, ‘যে সমস্ত সাংবাদিক ভাই ও বন্ধুদের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা করেছে মেয়রের পরিবার, আমি তাদের প্রতি সহনাভূতিশীল। আমার কাছে ৩ দিন আগে তারা এসেছিলেন। বলেছে, আপনি আমাদের পক্ষে আইনজীবী হিসেবে লড়ুন। আমি তাদের পরিস্কার ভাবে বলেছি, ‘অবশ্যই পক্ষে থাকবো। যাদি আপনারা অপরাধ করে থাকেন, আপনাদেরও বিচারের আওতায় আসতে হবে। তবে, সেটা বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের মাধ্যমে।’

আপনারা জানেন, কয়েকদিন আগে নারায়ণগঞ্জের ২-৩টি পত্রিকায় আমার বিরুদ্ধে উল্টাপাল্টা নিউজ করেছে। আমার জুনিয়ারা আমাকে না জানিয়ে লিগ্যাল নোটিশ দিয়েছে। সেই লিগ্যাল নোটিশও পত্রিকায় ছাপিয়েছেন। আমার যখন দৃষ্টিগোচর হয়েছে, যে প্রেসের বিরুদ্ধে লিগেল নোটিশ দেওয়া হয়েছে। আমি আমার সহকর্মীদের ভৎসনা করেছি। আমি পরিস্কার বলে দিয়েছে, তাঁরা ভূল করতে পারে, আমি ক্ষতিগ্রস্ত হলে প্রেস কাউন্সিলের আওতাভূক্ত হবো। আমি তাদের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা করবো না।

প্রবীন এই জননেতা বলেন, ‘আপনারা জানেন, দেবোত্তর সম্পত্তি ক্রয়-বিক্রয় করা যায় না। অথচ, নগরীর জিউস পুকুর নামক দেবোত্তর সম্পত্তি আত্মসাতের চেষ্টা করেছেন মেযর আইভীর পরিবার। আমি অভিযোগ তোলায় আইসিটি আইনে মিথ্যা মামলা করেছে। আমার অভিযোগ যে সত্যি ছিল, সম্প্রতি মেয়র আইভীর বক্তব্যেই প্রমান হয়ে গেছে। সে বলেছেন ‘দেবোত্তর সম্পত্তি আমার নানা কিনেছেন ৪ একর। তার মতো আরও অনেকেই কিনেছেন’। কিন্তু আমার কাছে, দলিল আছে- তার নানা মাত্র ৫৭ শতাংশ জমি কিনেছে। একই দিন মেয়রের মা, ২ ভাই, চাচা, চাচী, নানা ও মামারা মিলে ৬টি দলিলে মোট ৩৮৩ শতাংশ দেবোত্তর জমি কিনে আত্মসাৎ এর চেষ্টা করছেন। যেটা সম্পূর্ণ বে-আইনী।’

অ্যাড. খোকন সাহা আরও বলেন, সম্প্রতি মুসলিম ধর্মালম্বীদের মাদ্রাসা ভেঙ্গে পার্ক নির্মাণের চেষ্টার অভিযোগ উঠে মেয়র আইভীর বিরুদ্ধে। মসজিদ ভাংগার অভিযোগ, মসজিদের জায়গা অনাধীকার প্রবেশ, বানিজ্যিক করণের লক্ষে দখলের খায়েশ; এমন নানা অভিযোগই উঠছে। আর তখনই মেয়র ও তার সমর্থকরা ছড়িয়েছেন, ‘ওসমান পরিবার’র ইন্ধনে তাঁরা ষড়যন্ত্র করছে। যখনই তাঁর অন্যায়ের বিরুদ্ধে কোন সত্য প্রকাশ করা হয়, তখনই মেয়র ওই অভিযোগকে ‘ওসমান পরিবার বা নির্বাচন সামনে রেখে অপপ্রচার’ বলে বিভ্রান্ত ছড়িয়েদেন। তাহলে, ২০১৮ সালে কোন নির্বাচন ছিলো?, তখন কেন সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা হলো?

তিনি বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জে কোন হত্যাকাণ্ড হলেই আপনি বলবেন, ওসমান পরিবার জড়িত। এটা ঠিক না। এখন আমি যে, কথা গুলো বলাম- কালকেই দেখবেন, মেয়র ও তার সমর্থকরা বলবে, ‘খোকন সাহার উস্কানিতে সাংবাদিকরা মাঠে নেমেছে’। আসলে, মেয়রের অবস্থা- ‘সত্য প্রকাশ করলেই ওনি বলেন অপপ্রচার, নইলে বলেন সামনে নির্বাচন, না পারলে করেন মামলা।

প্রসঙ্গত, নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি খন্দকার শাহ আলম এর সভাপতিত্বে ২মার্চ চাষাড়া শহীদ মিনারে সাংবাদিকদের এক সভা অনুষ্ঠিত হয়।  নারায়ণগঞ্জের চার সাংবাদিকের উপর দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে ওই প্রতিবাদ সভায় জেলার সর্বস্তরের সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীর ভাই, আলী রেজা রিপনের দায়ের করা তৎকালীন আইসিটি অ্যাক্ট ৫৭ ধারা এবং বর্তমানে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হয়, নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি হাবিবুর রহমান বাদল, যুগান্তর ও ডিবিসি নিউজের সাংবাদিক রাজু আহম্মেদ, আনন্দ টিভির নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি, নারায়ণগঞ্জ বার্তা ২৪ ডট কম এর প্রকাশক ও সম্পাদক সৈয়দ সিফাত আল রহমান লিংকন, সংবাদ মাধ্যম দ্যা দেশ বাংলা ডট কম, বিডি নিউজ ওয়ান্ড, পি আর বি নিউজ ২৪ ডট কম এর নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি ও ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি মাহমুদ হাসান কচির বিরুদ্ধে।

0