মেয়রের উদ্দেশে খোকন সাহা ‘আশিক হত্যার সাথে আপনি জড়িত’

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা বলেছেন, আমি ত্বকী হত্যার বিচার চাই। তদন্ত করে আসল খুনিদের শাস্তি হোক আমিও চাই। ত্বকী হত্যার তদন্ত চলছে, আর একজন কলকাঠি নাড়াচ্ছেন। বলছেন, ওসমান পরিবারের সদস্যরা ত্বকীকে হত্যা করেছেন। নারায়ণগঞ্জের মেয়র সাহেব এই কলকাঠি নাড়াচ্ছেন। আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে বলবো তাদের রিমান্ডে নেন। তাদের রিমান্ডে নিলেই বেরিয়ে আসবে ত্বকী হত্যাকারী কারা। কারন আমি তো বলিনাই ত্বকী হত্যাকারী অমুক।


মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বন্দর একরামপুর পৌরসভার মোড় এলাকায় এনসিসি’র ২৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত কর্মীসভার প্রধাণ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন,  তদন্ত চলাকালে এমন কোন কথা বলা যাবেনা যাতে তদন্তকাজে বিঘ্ন হয়। তারা ওসমান পরিবারকে খুনী পরিবার বানায়া ফেললো। আমি জোড়ালো ভাবে দাবী রাখবো, ত্বকী হত্যার জন্য যারা ওসমান পরিবারের সদস্যদের দায়ী করে তাদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হোক তারা কোথা থেকে শুনেছে। তাদের রিমান্ডে নিলে এটা বের হয়ে আসবে। চঞ্চল হত্যার সময়েও তারা ওসমান পরিবারকে ইঙ্গিত করেছে। তারপর আশিক হত্যাকান্ডের সময় দেখা গেলো মাদক বিক্রি নিয়ে এই ঘটনা ঘটেছে। আর আমাদের মেয়র বললো ওসমান পরিবার দায়ী। আশিক আমার কাছে আসছিলো, আমি বলেছি তুমি ইন্ডিয়া চলে যাও ওরা তোমাকে মেরে ফেলবে। আজ যদি বলি আশিক হত্যার সাথে আপনি জড়িত। কেন আপনি আশিককে সেদিন সেইভ করলেন না।

খোকন সাহা বলেন, এই এলাকার যত উন্নয়ন হয়েছে সব শেখ হাসিনার অবদান। ওনি আছেন আমি করে দিয়েছি আমি করে দিয়েছি। এই আমিত্ব ভাব বাদ দেন৷ উন্নয়ন সব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। শামিম ওসমান সেলিম ওসমানকে দেখে শিখুন।

কর্মীসভায় এনসিসি’র ২৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাইফুদ্দিন আহমেদ দুলাল প্রধাণের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মহানগর আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক হুমায়ুন কবির মৃধা। বক্তব্য রাখেন মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি জুয়েল হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা জাকির হোসেন, সাবেক ২৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন আনু, মহানগর মহিলা লীগের সভানেত্রী ইসরাত জাহান খান স্মৃতি, মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান, রিয়াদ, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান কমলসহ নেতৃবৃন্দ।

0