রাতের আধারে ভয়ঙ্কর অলিগলি, না.গঞ্জের বাড়ছে ছিনতাই

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: জাহাজ শ্রমিক মুসা মুন্সিগঞ্জের বাসিন্দা। মুন্সিগঞ্জে যাবেন বলে ফজর নামাজ শেষে ভোরে ভের হন। কিছু দূর এগোতেই ছিনতাইকারীরা তাঁর সর্বস্ব কেড়ে নেয়। তাতেই শান্ত থাকেনি অপরাধী চক্রটি, শুরুতে এবং শেষে ছুরিকাঘাত করে মুসার শরীর রক্তাক্ত জখম করে। এক পর্যায়ে রক্ত ক্ষননে মৃত্যু হয় ওই ব্যক্তির।

গত ২৫ জুলাই নগরীর দ্বিগুবাবুর বাজার সংলগ্ন ফকিরটোলা মসজিদের সামনে এ ঘটনা ঘটে। তখন বেশ আলোচনাও সৃষ্টি হয়। কিন্তু বন্ধ হয়নি অপরাধ।

দিন দিন বাড়ছে ছিনতাই এবং ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে ঘটে যাওয়া হত্যার ঘটনা। টাকা, মালামাল, ইজিবাইক ছিনতাইকে কেন্দ্র করে হত্যার করে হচ্ছে ছিনতাই। লুটে নেয়া হচ্ছে প্রয়োজনীয় দামি মালামাল। সন্ধার অন্ধকার নামার পর রাত যতো গভীর হয় এলাকাবাসীদের মধ্যে ততো বাড়তে থাকে আতঙ্ক। কখনো ছদ্মবেশে কখনো বা হঠাৎ এসে দল বেধে হামলা করে। ছিনতাই করতে গিয়ে ৩ দিনের ব্যবধানে ঝড়ে পরেছে ২ তরতাজা প্রাণ।

১০ সেপ্টেম্বর ভোর রাতে কাঁচপুর ব্রিজের পূর্ব ঢালে সিলেটমুখী রাস্তার উপর থেকে গলাকাটা রক্তাক্ত মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছিল। পুলিশ বলছে, ওই ব্যক্তিকেও ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে হত্যা করা হয়েছে’।

সর্বশেষ ১৩ সেপ্টেম্বর রাতে যাত্রী সেজে বেলালের নামের এক চালকের ইজিবাইকে উঠে জাহিদ, রকিব ও বোরহান নামের ছদ্মবেশী ছিনতাইকারীরা। ঢাষাঢ়া থেকে ফতুল্লার বক্তাবলী যাওয়ার কথা বলা হয়। ভাড়া নির্ধারণ করে ৯০ টাকা। বক্তাবলী ঘাট এলাকায় পৌছাতেই নিমর্মভাবে হত্যা করা হয় চালককে। ফতুল্লার বক্তাবলী ফেরিঘাট এলাকায় নদীতে বেলালের লাশ ফেলে ইজিবাইক নিয়ে যায় ওই ৩ ছদ্মবেশী। পরে ইজিবাইক নিয়ে পালানোর সময় এলাকার লোকজন নিয়ে ও অন্য ইজিবাইক চালক তাদেরকে আটক করে।

0