রূপগঞ্জে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় পৃথক মামলা

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনায় উভয় পক্ষ মামলা দায়ের করেছে।

ভুলতা ইউনিয়নের ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হামজালার পক্ষে তার স্ত্রী মুন্নি আক্তার ও ছাত্রলীগ নেতা খন্দকার তারেক আহম্মেদ বাদী হয়ে মামলা দুটি করে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রূপগঞ্জ থানায় উভয় পক্ষের মামলা রূজু করা হয়।

এ ঘটনায় উভয় পক্ষের নয় জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, মেহেদী হাসান বাপ্পি, জিসান, রফিক, সুমন, দ্বীন ইসলাম, দ্বীপ বিশ্বাস, সোহাগ, আসাদ ও মেহেদী হাসান রনি।

জানা যায়, গত ২৫ ফেব্রুয়ারী রাত ৯ টার দিকে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এসময় এক পক্ষ আরেক পক্ষের দলীয় কার্যালয় ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। অফিসে থাকা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পাট ও বস্ত্র মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজীর ছবি ভাংচুর করা হয়।

এ ঘটনায় হামজালার পক্ষে তার স্ত্রী মুন্নি আক্তার বাদী হয়ে রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়সাল আলম শিকদার, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক মাসুম, আব্দুল্লাহ ও ইমরানসহ ৫০/৬০ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে মামলা দায়ের করেন।

অপরদিকে, ছাত্রলীগ নেতা খন্দকার তারেক আহম্মেদ বাদী হয়ে হামজালা, সিয়াম, মানিক, সৌরভ, ইসমাইল, সোহাগ, মেহেদীসহ অজ্ঞাত আরো ১০/১২ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ অভিযান পরিচালনা করে সংঘর্ষের ঘটনায় জড়িত নয় জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

রূপগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মাহমুদুল হাসান জানান, এ ঘটনায় উভয় পক্ষ মামলা দায়ের করে। এ ঘটনায় যারা প্রকৃত দোষী তাদের কাউকে ছাড় দেয়া হবেনা।

0