রূপগঞ্জে সোনালী ব্যাংক স্থানান্তর না করার দাবীতে প্রতিবাদ সভা

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: স্বার্থবাজদের ইন্দনে রূপগঞ্জে তারাবো বাজারে স্থাপিত সোনালী ব্যাংক শাখাটি অনত্র স্থানান্তর না করে ব্যাবসায়ীদের কথা বিবেচনা করে তারাবো বাজারে রাখার দাবী নিয়ে তারাব পৌর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির উদ্দ্যেগে প্রতিবাদ সভার আয়োজন করা হয়েছে। সোমবার (২৯ নভেম্বর) সকাল ১১টায় তারাবো বাজারে ওই প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।


তারাবো পৌর সভার সাবেক মেয়র মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম চৌধুরী এর সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, তারাবো ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোজ্জামেল হক প্রধান, পর পর চার বারে নির্বাচিত তারাবো পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও প্যানেল অব মেয়র-১ মো. আমির হোসেন ভূইয়া, তারাবো পৌর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারন সম্পাদক নূরুল হক ভূইয়া, অবসর প্রাপ্ত ব্যাংক অফিসার ইসমাইল হোসেন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ফয়েজ ভূইয়াসহ তারাবো বাজারের চাল, গম, আটা ময়দা, পোল্টি ফার্ম, বাঁশ, কাচামাল, মনোহারিসহ সবধরনের ব্যবসায়ীরা প্রতিবাদ সভায় উপস্থিত ছিলেন।

বক্তব্যে তারা বলেন, দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে সোনালী ব্যাংকটি স্থাপিত হয় ঐতিহ্য বাহী তারবো বাজারে। এ শাখায় ব্যবসায়ীসহ সাধারণ মানুষের সুবিধার কথা চিন্তা করে ভাড়া করা ভবনে। ৪০ বছরে এখানে অনেক গ্রাহকের ব্যাংক লেনদেন পরিচালনা হচ্ছে। এ স্থানে সব দিক দিয়ে মানুষ নিরাপত্তা বোধ করে। কিন্তু আজ কতিপয় লোক নিজ স্বার্থ হাসিল করতে ব্যাংকটি স্থানান্তরে ইন্দোন দিয়ে যাচ্ছে।

তারা আরও বলেন, কতিপয় কিছু লোক সোনালী ব্যাংক এর প্রধান কার্যালয়ের ডেপুটি ম্যানেজার ডাইরেক্টর খায়রুল কবির কে দিয়ে তারাবো সুলতানা কামাল ব্রীজ সংলগ্ন তাদের নিজস্ব ভবনে ব্যাংক স্থানান্তরের পায়তারা করছে। এ তথ্য পেয়ে বাজার ব্যবসায়ী সমিতি নারায়ণগঞ্জ প্রিন্সিপাল অফিস সোনালী ব্যাংক এর ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজারের নিকট এ বছরের ৬ জুলাই একটি লিখিত ভাবে ব্যাংক স্থানান্তর না করার দাবি জানান। ব্যবসায়িদের মতে ব্যাংকটি সুলতানা কামাল ব্রীজ এর নিকট নিলে সাধারণত মানুষ সহ ব্যাংক এর নিরাপত্তার বেঘাত ঘটবে। কারন সে স্থানটি মহাসড়কের পাশে বলে সেখানে অহরহ চুরি, ছিনতাইসহ ডাকাতির মতো ঘটনা ইতোপূর্বে হয়েছে। তাই কারো স্বার্থের কথা চিন্তা না করে কারো ইন্দোনে প্রভাবিত না হয়ে বিষয়গুলো বিবেচনা করে এ স্থানেই ব্যাংকটি রাখলে সবাই উপকৃত হবে বলে সবাই বলে থাকেন।