রূপগঞ্জে সোলেমান হত্যায় গ্রেপ্তার এড়াতে দুই আসামির আত্মসমর্পন

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: রূপগঞ্জে সোলেমান হত্যায় গ্রেপ্তার এড়ানোর জন্য ৪মাস পর বিজ্ঞ আদালতে আত্মসর্মপণ করেছে হত্যার সাথে জরিত ২ আসামি। বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) আসামিরা বিজ্ঞ আদালতে আত্মসমর্পন করে, পরদিন আদালতে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) ৭দিনের রিমান্ড আবেদন করলে আদালত ২দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে।


আসামিরা হলো, রূপগঞ্জ উপজেলার নামাপাড়ার গর্ন্ধবপুর এলাকার মো. রফিকের ছেলে মো. মামুন (৩২) এবং একই এলাকার ইব্রাহীমের ছেলে আবদুর রহমান (২৮)।

এদিকে, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক আরিফুর রহমান আদালতে ২দিনের রিমান্ড শেষে রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আহাম্মেদ হুমায়ন কবীর এবং শাকিল আহম্মেদ এর আদালতে প্রেরন করলে খুনের দায় শিকার করে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে আসামিরা।

পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক (ইন্সপেক্টর) আরিফুর রহমান লাইভ নারায়ণগঞ্জকে জানান, রূপগঞ্জের মুড়াপাড়া এলাকার সোলেমান হত্যা মামলায় ২ আসামি গত বুধবার গ্রেপ্তার এড়ানোর জন্য আদালতে আত্মসমর্পন করে। পরে পিবিআই বিজ্ঞ আদালতের কাছে ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করলে আমরা আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করি।

তিনি আরও জানান, ব্যপক ভাবে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে আসামিরা ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন এবং ঘটনার সাথে জড়িত আসামিদের নাম প্রকাশ করেন। বর্তমানে আদালতের নির্দেশে জেল হাজতে আছেন তারা। তদন্তের স্বার্থে প্রাকাশিত আসামিদের নাম গোপন রাখা হয়েছে। মামলায় বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারের অভিযান এবং মামলা তদন্ত কার্যক্রম অব্যাহত আছে।

উলেক্ষ্য, গত ১জুন বেলা সোয়া ১২টায়  রূপগঞ্জে গর্ন্ধবপুর লামাপাড়া মসজিদের পশ্চিম পাশে বালুর মাঠে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ১০/১২ জন মিলে সোলাইমান ও সংর্গীয়দের গতিরোধ করে এলোপাতাড়ীভাবে পিটিয়ে মারাত্মকভাবে রক্তাক্ত জখম করে। পরবর্তীতে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সোলাইমানকে মৃত ঘোষনা করে। পরদির সোলেইমানের ভাই রাজীব বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানার মামলা হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে মামলার গুরুত্ব বিবেচনায় মামলাটির তদন্তভার পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) উপর অর্পিত হয়।

0