র‌্যাব পরিচয়ে ডাকাতি: ভূইঘর থেকে আটক এসআই রিমান্ডে

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: রাজধানীর ওয়ারী থানার ডাকাতি মামলায় নারায়ণগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের এসআই রাশেদুল আলমকে দুই দিন রিমান্ডে নেওয়ার অনুমতি দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (১৩ জানুয়ারি) শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম আশেক ইমাম রিমান্ডের এ আদেশ দেন। এরআগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ওয়ারী থানার এসআই হারুন-অর-রশিদ আসামিকে আদালতে হাজির করে সাতদিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন।

গ্রেপ্তারকৃত ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের এসআই রাশেদুল আলম ফতুল্লা থানার ভুইঘর এলাকার শহিদুল্লার ছেলে।

এ বিষয়ে আদালত পুলিশের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা হেলাল উদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, আসামি রাশেদুল আলমকে ১২ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানার ভুইঘর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ২০১৯ সালের ৫ ডিসেম্বর মামলার বাদী শফিউল আলম আজাদ, তার বন্ধু গিয়াসউদ্দিন ও ভাগিনা মাহমুদুল হাসান মুন্না ও সিঙ্গাপুর প্রবাসী মামা বাড়ি নির্মাণ করতে সাড়ে পাঁচ লাখ টাকা নিয়ে মাদারীপুরের উদ্দেশ্যে রওনা হন। তারা ওয়ারি থানা এলাকার টিপু সুলতান রোডে পৌঁছালে অজ্ঞাতনামা চার থেকে পাঁচজন একটি সিলভার রঙের মাইক্রোবাসে এসে র‌্যাব পরিচয় দিয়ে বাদীর পেটে অস্ত্র ঠেকিয়ে সবাইকে গাড়িতে উঠিয়ে নেয়। এরপর তাদেকে মুন্সীগঞ্জে নিয়ে যায়। পরে সেখানে সবার হাত ও চোখ বেঁধে তাদের কাছে থাকা সাড়ে পাঁচ লাখ টাকাসহ অন্যান্য মূল্যবান জিনিসপত্র হাতিয়ে নেয়।

ওই ঘটনায় গত ১৮ ডিসেম্বর ওয়ারী থানায় ডাকাতির অভিযোগে একটি মামলা করেন শফিউল আলম আজাদ। মামলার পর বিভিন্ন সময় রিপন কাজী, মুক্তার হোসেন, আশিক ইকবাল, রাসেল আহমেদ, শরিফুল ইসলামকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারের পর আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন তারা। জবানবন্দিতে এস আই রাশেদুল আলমের নাম উঠে আসে।

0