লবন কিনে ঠকলেও আয়ের সুযোগ

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: লবন কিনে ঠকেছেন? হতাশ না হয়ে অভিযোগ করুন, আয়ের একটি নতুন পথ খুলবে আপনার জন্য। ধরুন, আপনি কেজি লবনের একটি পেকেট কিনলেন, যার মোড়কে লেখা মূল্য ৩৫ টাকা। কিন্তু আপনি যে দোকানে গিয়েছিলেন, সেখানে অনেকটা গায়ের জোরেই ৫০ টাকা নিল। একটু কষ্ট করে রসিদ সংগ্রহ করুন। অভিযোগ করুন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে দুই সপ্তাহের মধ্যে আপনি জরিমানার ২৫ শতাংশ অর্থ পেয়ে যাবেন।

এমন অভিযোগ করে ভোক্তা জরিমানার ভাগ পেয়েছেন এমন ঘটনা অনেক আছে।

২০১০ সাল থেকে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে (ডিএনসিআরপি) পণ্য কিনে ঠকার অভিযোগ করে টাকা পেয়েছেন হাজারও ক্রেতা।

শুধু সাধারণ দোকান নয়, ডিএনসিআরপিতে জরিমানার মুখে পড়েছে অসংখ্যা, গ্রামীণফোন, রবির মতো বড় প্রতিষ্ঠানগুলোও।

২০০৯ সালে সরকার ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন করার পর এর অধীনে গঠিত হয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। ২০১০ সালের ৬ এপ্রিল বাজারে অভিযান চালিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কার্যক্রম শুরু করে এ সংস্থা। নারায়ণগঞ্জেও এর অফিস রয়েছে।

এ বিষয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের নারায়ণগঞ্জ অফিসের সহকারি পরিচালন তাহমিনা বেগম জানান, লবনের পেকেটে যে নির্ধারিত মূল্য রয়েছে। তার চেয়ে কেউ বেশি মল্য রাখলে অপরাধ বলে গণ্য হবে। আমাদের কেউ যদি অতিরিক্ত মূল্যে লবন বিক্রির বিষয়টি জানায় আমরা ব্যবস্থা নিবো।

কেউ লবন কিনে ঠকলে যোগাযোগ করতে পারেন নিচের দেওয়া নাম্বারে।

জাতীয় ভোক্তা অভিযোগ কেন্দ্র:
ফোনঃ ০২-৫৫০১৩২১৮ মোবাইল: ০১৭৭৭-৭৫৩৬৬৮.
ই-মেইল: nccc@dncrp.gov.bd

অথবা,

নারায়ণগঞ্জ অফিস:
সহকারি পরিচালক: ০১৭০৩১৯৮৮৬৮, ০১৯১১২৩২৬০৪

0