শেখ রাসেল পার্ক রক্ষা দাবিতে “আমরা নারায়ণগঞ্জবাসী”র গন-অনশন

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: শেখ রাসেল নগর পার্কের কাজ চলমান রেখে দ্রুত সম্পন্ন করে জনসাধারনের জন্য উন্মুক্ত করা দাবি জানিয়ে আমরা নারায়ণগঞ্জবাসীর সভাপতি আলহাজ্ব নুর উদ্দিন আহম্মেদ বলেছেন, রক্ত দিব, জীবন দিব, তবুও নারায়ণগঞ্জের উন্নয়নের স্বার্থে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলব।

বুধবার (৬ নভেম্বর) সকাল ১০টা থেকে দুপুর সোয়া ১টা পর্যন্ত আমরা নারায়ণগঞ্জবাসী সংগঠনের উদ্যোগে আলী আহাম্মদ চুনকা নগর মিলনায়তনের চত্বরে এ কথা বলেন।

আমরা নারায়ণগঞ্জবাসী সংগঠনের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব নুর উদ্দিন আহম্মেদ এর সভাপতিত্বে এবং যুগ্ম সম্পাদক মাহামুদ হোসেন ও সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাকিদ মোস্তাকিম শিপলুর সঞ্চালনায় এক বিরাট গন-অনশন ও অবস্থান ধর্মঘট কর্মসূচী পালিত হয়। গণ-অনশন শেষে নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাব সভাপতি আমরা নারায়ণগঞ্জবাসীর সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব নুরউদ্দিন আহমেদ সহ নেতৃবৃন্দের মুখে পানি দিয়ে অনশন ভঙ্গ করান।

আমরা নারায়ণগঞ্জবাসীর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মন্ডলীর সদস্য ও নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি এডভোকেট মাহবুবুর রহমান মাসুম তার বক্তব্যে নারায়ণগঞ্জের গডফাদারদের হুশিয়ারী করে বলেন যে, হয় নারায়ণগঞ্জের ভাল কাজকে সহযোগিতা করুন, অন্যথায় নারায়ণগঞ্জের মানুষ আপনাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে বাধ্য হবে। তিনি শেখ রাসেল নগর পার্ক এবং হাজীগঞ্জ ও সোনাকান্দা দুর্গের উন্নয়ন ও পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলার যৌক্তিকতা উপস্থাপন করে নারায়ণগঞ্জের সৌন্দর্য্য বর্ধনের জোড় দাবি জানান। পাশাপাশি তিনি জনসাধারনের চলাচলের জন্য ফুটপাত উন্মুক্ত রাখার দাবি জানান।

সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন মন্টু বলেন, নারায়ণগঞ্জের সৌন্দর্য্য বর্ধনের জন্য নারায়ণগঞ্জের ফুসফুস বলে খ্যাত হাতিরঝিলের আদলে নির্মিয়মান শেখ রাসেল নগর পার্ক সকল অশুভ অপশক্তির রক্ত চক্ষু উপেক্ষা করে দ্রুত সম্পন্ন ও উন্মুক্ত করার জন্য মাননীয় নাসিক মেয়রের প্রতি জোড়ালো আহ্বান জানান। এছাড়াও ঐতিহ্যবাহী সোনাকান্দা ও হাজীগঞ্জ দুর্গ পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলায় নাসিকের পরিকল্পনায় শত বাধা অতিক্রমকল্পে সমস্ত সহযোগিতা আমরা নারায়ণগঞ্জবাসীর পক্ষ থেকে দৃঢ় সমর্থন থাকবে বলে উল্লেখ করেন।

যুগ্ম সম্পাদক মাহমুদ হোসেন বলেন নারায়ণগঞ্জের উন্নয়নে নাগরিক সুবিধার্থে সাবেক পর্যায় শীতলক্ষ্যা নদী হইতে বুড়িগঙ্গা নদী পর্যন্ত বাবুরাইল খাল উন্মুক্ত করার দাবী জানান। পাশাপাশি নারায়ণগঞ্জের রাস্তা-ঘাট নির্মানের পরে দেখা যায় কিছুদিন পরেই রাস্তাগুলো ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে যায়, বিভিন্ন ড্রেনের স্লাব ভেঙ্গে যায়। সংস্কার কাজের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের অনিয়ম রোধ করার লক্ষ্যে তাদের কাছ থেকে ক্ষতিপূরন আদায়ের দাবি জানান, বিভিন্ন এলাকার ড্রেনের ভাঙ্গা স্লাবগুলো দ্রুত পুনঃস্থাপনের দাবী জানান ও শেখ রাসেল নগর পার্ক এবং হাজীগঞ্জ ও সোনাকান্দা দুর্গে পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলার দাবী জানান।

নারায়ণগঞ্জ নাগরিক কমিটির সভাপতি এড. এ.বি. সিদ্দিক আমরা নারায়ণগঞ্জবাসীর কর্মসূচীর প্রতি সংহতি জানিয়ে প্রকাশ করেন। তিনি আরো বলেন নারায়ণগঞ্জ চাষাড়াস্থিত পুলিশ ফাড়ি ও ডাক-বাংলা ভবনটি সরিয়ে যানজটমুক্ত রাখার নিমিত্তে রাস্তাটির প্রশস্ত করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জোড় দাবী জানান।

আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন শ্রমিক নেতা এড. আহসানুল করিম চৌধুরী বাবুল বলেন, আমরা নারায়ণগঞ্জবাসী সংগঠনের আজকের এই কর্মসূচী সময়োচিত ও যুক্তি সম্মত বলে আমি মনে করি, তাদের এই দাবীর প্রতি আমি পুর্ন সমর্থন ঘোষনা করছি এবং আগামীতে শেখ রাসেল পার্ক ও দুর্গ দুটিকে পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলার জন্য যা যা করনীয় তা আমি করব।

দৈনিক ইয়াদ পত্রিকার সম্পাদক জনাব তোফাজ্জল হোসেন, শেখ রাসেল নগর পার্ক নির্মান চলমান রাখা এবং হাজীগঞ্জ ও সোনাকান্দা দুর্গ দুটি পর্যটক কেন্দ্র গড়ে তোলার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেন এবং রেলমন্ত্রীর জনস্বার্থ বিরোধী নাবালক সুলভ বক্তব্যের জন্য তার পদত্যাগ দাবী করেন।

সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রেস ক্লাব সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব দীল মোহাম্মদ দীলু, ইসলামি আন্দোলন নারায়ণগঞ্জ মহানগর সভাপতি মুফতি মাসুম বিল্লাহ, মাদক নির্মুল কমিটির আহ্বায়ক বদরুল হক, সাম্যবাদী নেতা মোঃ হানিফুল কবির, দৈনিক জন্মভূমি প্রকাশক ও সম্পাদক জাফর আহমেদ, ভোরের সাথীর সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ আব্দুল হাই।

আমরা নারায়ণগঞ্জবাসীর সভাপতি ও সম্পাদক মন্ডলীর নেতৃবৃন্দ যথাক্রমে এড. মাহবুবুর রহমান ইসমাইল, কুতুবউদ্দিন আহমেদ, রমজানুল রশিদ, হাজী মোঃ সেলিম, মোঃ আনোয়ার হোসেন দেওয়ান, জাহাঙ্গীর কবির পোকন, দিলারা মাসুদ ময়না, আজিজি আল-আরমান, মাকিদ মোস্তাকিম শিপলু, আলামিন।

গন-অনশন কর্মসূচীতে আরো উপস্থিত ছিলেন- জনাব আব্দুল কুদ্দুস আজাদ, ডাঃ এস.এম মোসাদ্দেক, আব্দুস সাত্তার ভুট্টো, আজমত উল্লাহ খন্দকার, কামরুজ্জামান বাবু, হাজী মোঃ রুহুল আমিন, এ.কে আজাদ, হাজী মোঃ মনির হোসেন, মোঃ শফিকুল ইসলাম খান, মোঃ তোফাজ্জল হোসেন, শ্রমিক নেতা মনির হোসেন, শ্রমিক নেতা সাইফুল ইসলাম, প্রনিক সভাপতি মোঃ সেলিম সিদ্দিক, সায়েদুল ইসলাম সাকিল, আব্দুল্লাহ ইউসুফ, নুর হোসেন, মোঃ শুক্কুর, মোঃ সুলতান, আবুল হোসেন, মোঃ ইস্রাফিল, কাইয়ুম নবাব, মোঃ সালাউদ্দিন ভূইয়া হাসু, মোঃ টিটুল, মেহেদি হাসান তপু, আমান হোসেন সিয়াম, ডাঃ আব্দুল জব্বার চিশতী, হাতেম আলী কাজী, শওকত আলী নোমান, মোঃ বাবুল, এন.আই রোমান সহ শত শত নারায়ণগঞ্জের সাধারণ জনগণ।

0