সকল সেক্টর চালু, শুধু বিচার ‘অঙ্গন’ স্তব্ধ: এড. সাখাওয়াত

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বাংলাদেশের সকল সেক্টরে স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরু করার ব্যবস্থা করে দিয়েছে সরকার। শুধু মাত্র বিচার আঙ্গনকে স্তব্ধ করে রাখা হয়েছে। এই স্তব্ধের কারণে সাধারণ মানুষ বিচার পাচ্ছে না। আইনজীবীসহ এই আদালতের সাথে যারা সম্পৃক্ত তাদের রুটি- রুজির উপরে আজকে প্রভাব পড়ছে। এতে আইনজীবী ও সাধারণ মানুষ ভোগান্তির শিকার হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) সকালে একথা বলেন জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এড. সাখাওয়াত হোসেন খান।

এর আগে, ভার্চ্যুয়াল কোর্ট বন্ধ করে নিয়মিত কোর্ট চালুর দাবিতে নারায়ণগঞ্জ আদালত প্রঙ্গনে চর্তুথ দিনের সমাবেশ ও মানববন্ধন করেন আইনজীবীরা।

এড. সাখাওয়াত হোসেন আরও বলেন, ভার্চুয়ার কোর্ট পরিচালনা হওয়া আদালতের সঙ্গে জড়িত সকলেই কষ্টে এবং সমস্যার মধ্যে দিয়ে দিন কাটাচ্ছে। নিয়মিত কোর্ট পরিচালনা করার দাবী শুধু আইনজীবীদের নয়, এটি সাধারণ মানুষেরও দাবী। আমরা আইনজীবী, আমাদের দেশের সকল আইন মেনে চলি। সকল কিছুই স্বাভাবিক ভাবে চলছে, তাহলে কেনো ভার্চুয়ালে কোর্ট পরিচালিত হবে? আমরা চাই সামাজিক দুরত্ব ও স্বাস্থবিধি মেনে নিয়মিত কোর্ট পরিচালিত হোক। আমরা সরকারের কাছে কোন প্রনদনা চাই না। অনান্য সেক্টরগুলো যেভাবে পরিচালিত হচ্ছে, আমরা আমাদের অধিকার বলতে চাই, নিয়মিত কোর্ট চালু করা হোক।

জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এড. হাবিব আল মুজাহিদ পলু বলেন, একজন আইনজীবীর পরিবারের খরচ চালানোর পাশাপাশি নিজের চেম্বার ভাড়া, জুনিয়র আইনজীবী, আইনজীবী সহকারী, সন্তানের লেখাপড়া সহ নানা খরচ। কিন্তু এই ভার্চুয়াল কোর্ট পরিচালনায় তারা সেই খরচ মিটাতে হিমশিম খাচ্ছে। নিয়মিত কোর্ট পরিচালিত হলে দেশের আইনের সুফল ভোগ করতে পারবে।

তিনি আরও বলেন, রাজনীতি যার যার, এখানে আমরা সবাই আইনজীবী। আমাদের সকলের পেশা এক। রাজনীতির উর্দ্বে গিয়ে পেশাকে টিকিয়ে রাখতে আমরা এই আন্দোলনে যুক্ত হয়েছি।

জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি এড. আলী আহম্মদ ভূইয়া বলেন, প্রনদনার চাই না কাজ চাই। ভার্চ্যুয়াল নয়, একর্চ্যুয়াল কোর্ট চাই। আইনজীবীদের পেশাকে টিকিয়ে রাখতে বর্তমানে একর্চ্যুয়াল কোর্ট পরিচালনা করা উচিত।

এ সময়ে মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন এড. নূরুল হুদা, এড. আওলাদ হোসেন, এড. রফিকুল ইসলাম, এড. রিয়াজুল ইসলাম আজাদ, এড. খোরশেদ আলম মোল্লা, এড. আব্দুল হামিদ খান ভাষানী, এড. আনোয়ার প্রধান সহ সাধারণ আইনজীবীরা।

এলএন/এসএ/০৭০২-০৫

0